করোনাভাইরাস সংক্রমণ মোকাবিলায় গোটা দেশের কাছেই রোল মডেল কেরল। কিন্তু এবার সেই রাজ্যটি কেন্দ্রীয় সরকারের সঙ্গে রীতিমত সংঘাতের পথে হাঁটছে। বর্তমানে কেরলের পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলেও গোটা দেশে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। দুদফায় টানা ৪০ দিনের লকডাউনের কথা ঘোষণা করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। কিন্তু সোমবার থেকে বেশ কয়েকটি বিষয়ে ছাড় দেওয়ার কথাও ঘোষণা করা হয়েছে। এই পরিস্থিতি দাঁড়িয়ে কেরল সরকার অনেকটাই শিথিল করেছে লকডাউনের নিয়ম। আর তাতেই ক্ষুব্ধ কেন্দ্রীয় স্বারাষ্ট্র সচিব। রীতিমত চিঠি লিখে পিনারাই বিজয়ন সরকারের কাছে অনুরোধ জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র সচিব অজয় ভাল্লা। 

কেলরের স্বরাষ্ট্র সচিব টম জোসের কাছে লেখা চিঠিতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র সচিব অনুরোধ করেছেন লকডাউন ইস্যুতে গত ১৫ এপ্রিল জারি হওয়া কেন্দ্রের গাইডলাইন যেন মেনে চলে কেরল সরকার। ২০০৫ সালে ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট অ্যাক্ট অনুযায়ী তৈরি হয়েছে এই গাইড লাইন। তবে বিষয়টি নিয়ে এখনও তেমনও প্রতিক্রিয়া জানায়নি কেন্দ্রীয় সরকার। শুধু কেরল নয় রবিবার থেকেই কেন্দ্রীয় সরকার সব রাজ্যগুলির কাছে আবেদন জানিয়েছিল।  লকডাউন ইস্যুতে দেশের প্রতিটি রাজ্য ও কেন্দ্রীয় শাসিত অঞ্চল যেন কেন্দ্রের গাইড লাইন মেনে চলে , তা নিশ্চিত করতে সবকটি রাজ্যে চিঠিও পাঠান হয়েছিল। 

করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে গত ডিসেম্বর মাস থেকেই লড়ছে কেরল। ইতিমধ্যে কিছুটা হলেও সাফল্য পেয়েছে বিজয়ন সরকার। এই অবস্থায় দাড়িয়ে গোটা রাজ্যের ১৪টি জেলাকে চারটি জোনে ভাগ করেছে কেরল সরকার- লাল, সবুজ, কমলা এ আর কমলা বি। করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা যেখানে বেশি যেমন কাসরগড়, মাল্লাপুরম, কোজিকোড় সহ একাধিক জেলা রয়েছে লাল জোনের অন্তর্গত। এই সব জেলায়  আগামী ৩ মে পর্যন্ত সম্পূর্ণ লকডাউন থাকবে বলেই ঘোষণা করা হয়েছে। অন্যদিকে কমলা এ জোনে রয়েছে পাঠানমথিত্তা, এরনাকুলাম  ও কোল্লাম। কমলা বি জোনে রয়েছে আলাপুজা, তিরুবন্তপুরম ওয়াইনাড। এই সব এলাকায় শুক্রবার পর্যন্ত কড়া আইন জারি থাকবে। কোট্টাম আর ইউদুক্কি সুবজ জোনের অন্তর্গত হওয়ায় আজ থেকেই কিছুটা শিথিল হচ্ছে লকডাউনের নিময়। 

দুটি জোনে আজ থেকেই জোড় বিজোড় সংখ্যায় বেসরকারি গাড়ি চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। একটি বালিশ ব্যবহার করে একটি বাইকে দুই আরোহী সওয়ার হতে পারে বলেও জানান হয়েছে প্রশাসনের তরফ থেকে। পাশাপাশি হোটেল, বইয়ের দোকান খোলার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। শহরের মধ্যে খুব কম দূরত্বে বাস চলাচলেরও সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিজয়ন সরকার। আর কেরল সরকারের এই সিদ্ধান্ত নিয়েই রীতিমত উষ্মা প্রকাশ করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। 

আরও পড়ুনঃ সাহস আর মনের জোরে মাত্র ৪ দিনেই রোগমুক্তি,করোনা সারিয়ে কী বললেন জিৎ সিং শুনেনিন ...

আরও পড়ুনঃ করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে গোটা বিশ্বের ঐক্যবদ্ধ লড়াই জয় আনবে, ম্যাটারহর্ন শৃঙ্গের প্রসঙ্গ এনে বার্তা ম...

আরও পড়ুনঃ করোনা মোকাবিলায় ভারতের সঙ্গে তুলনা, ট্রাম্প বললেন রেকর্ড করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ...