করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে কমবেশি লড়াই চালাচ্ছে পৃথিবীর প্রায় সবকটি দেশ। আর এই লড়াইকে স্বাগত জানিয়েছে সুইৎজারল্যান্ড। সেদেশের উচ্চতম শৃঙ্গ ম্যাটারহর্নকে আলের মাধ্যমে  বিভিন্ন দেশের পতাকায় রাঙিয়ে তোলা হচ্ছে। শনিবার আলপস পর্বতমালার এই শৃঙ্গ সেজেছিল ভারতীয় জাতীয় পকাতায়।   ১৪ হাজার ৬৯২ ফুট উঁচু ওই শৃঙ্গ প্রতিদিনই সূর্যাস্তের পরে করোনা মোকাবিলায় বিশ্বের দেশগুলির ঐক্যবদ্ধ লড়াইয়ের বার্তা দিচ্ছে। সেই প্রসঙ্গ টেনে এনে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেন এই গোটা বিশ্বই করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই চালাচ্ছে। আর এই ঐক্যবদ্ধ লড়াইয়ের ফলে জয় আসবেই। 

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সোশ্যাল মিডিয়ায় ভারতীয় রেলকেও তাঁদের লড়াইয়ের জন্য শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। একই সঙ্গে স্বাগত জানিয়েছেন রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েলকেও। তিনি বলেন, এই গুরুত্বপূর্ণ সময় রেলও ভারতের প্রতিটি নাগরিককে অবিচ্ছিন্নভাবে সাহায্য করে চলেছে। একই সঙ্গে পেট্রোলিয়াম মন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রসাদকেও স্বাগত জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। কারণ সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমেই দেশে এই পরিস্থিতিতে এলপিজি সিলিন্ডার সরবরাহকারীদের স্বাগত জানিয়েছিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। সেই বার্তার প্রসঙ্গ টেনে এনে মোদী বলেন ভারত জ্বালানির চাহিদা পুরণ করতে পারে। কিন্তু সেই লক্ষ্যপূরণে যাঁরা অবিচল, দিনরাত এক করে কাজ করছেন তাঁদের প্রনাম জানান প্রধানমন্ত্রী।  

 

গত ২৫ মার্চ থেকেই করোনাভাইরাসের সংক্রমণের বিরুদ্ধে লড়াই করতে গোটা দেশেই জারি হয়েছে লকডাউন। প্রথমে ১৪ই এপ্রিল পর্যন্ত তা কার্যকর রাখার কথা হয়েছিল। কিন্তু পরিস্থিতি আশানুরূপ না হওয়ায় আগামী ৩ মে পর্যন্ত লকডাউন থাকবে বলেও ঘোষণা করা হয়েছে। এই পরিস্থিতি জরুরী পণ্য পরিষেবা জারি রয়েছে। ট্রেন না চললেও পরোক্ষভাবে রেলকর্মীরা করোনাযুদ্ধে সরাসরি সামিল হয়েছে। এই অবস্থায় উড়ান পরিষেবা বন্ধ থাকা সত্ত্বেও বিদেশ থেকে ভারতীয়দের ফেরাতে অথবা ভারতে থাকা বিদেশী পর্যটকদের দেশে পৌঁছে দিয়ে কঠিন পরিস্থিতিতেও চালু রেখেছে পরিষেবা। আর কার্গো বিমান চলাচল অব্যাহত রয়েছে। যার মাধ্যমে দেশের সর্বত্র পৌঁছে যাচ্ছে মেডিক্যাল কিটসহ নানা প্রয়োজনীয় জিনিস। প্রধানমন্ত্রী তাই সকল পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিদের স্বাগত জানান সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে। 

আরও পড়ুনঃ প্রত্যক্ষ বিদেশী বিনিয়োগ নীতিতে বড়সড় রদবদল, চিনকে আটকাতে মরিয়া কেন্দ্র ...

আরও পড়ুনঃ লকডাউনের শেষ ২ সপ্তাহে হাল ধরতে মরিয়া কেজরিওয়াল প্রশাসন, ঘোষণা আর কোনও ছাড় নেই দিল্লিতে ...

আরও পড়ুনঃ সাহস আর মনের জোরে মাত্র ৪ দিনেই রোগমুক্তি,করোনা সারিয়ে কী বললেন জিৎ সিং শুনেনিন ...