করোনা আতঙ্কে এবার কি পানীয় জল সরবরাহও বন্ধ হয়ে যাবে? লকডাউনের মাঝেই ফের নয়া গুজব ছড়াল রাজ্যে।  স্বাস্থ্য বিধির তোয়াক্কা না করে 'কলতলা'য় নিজেদের মধ্যে হাতাহাতি জড়িয়ে পড়লেন স্থানীয় বাসিন্দারা। ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগণার বাসন্তীতে।

আরও পড়ুন: লকডাউনেও বাড়ির বাইরে, জানেন মাত্র একজন করোনা রোগীর থেকে কতজন আক্রান্ত হতে পারে

পরিস্থিতি কবে স্বাভাবিক হবে, জানা নেই কারও-ই। রাজ্য জুড়ে লকডাউনের জেরে আপাতত ঘরবন্দি হয়ে থাকতে হচ্ছে সকলেই। বাইরে বেরনোর উপায় নেই, রাস্তায় টহল দিচ্ছে পুলিশ। আইন ভাঙলে কোথায় লাঠিচার্জ করা হচ্ছে, তো কোথাও কান ধরে উঠবোস করানো হচ্ছে। তবে ওষুধ-সহ অন্যন্য নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের দোকানগুলিকে অবশ্য লকডাউনের আওতায় বাইরে রাখা হয়েছে। কিন্তু দোকানের ক্রেতাদের ভিড় করতে দিচ্ছে না পুলিশ। 'সামাজিক দূরত্ব' বজায় রাখার জন্য রাস্তায় টেনে দেওয়া হয়েছে 'লক্ষ্মণরেখা'। এই যখন পরিস্থিতি, ঠিক তখনই পানীয় জল নিয়ে গুজব ছড়াল দক্ষিণ ২৪ পরগনার বাসন্তীতে। বিভিন্ন এলাকায় টিউবওয়েলগুলির সামনে দীর্ঘ লাইনটি তো ছিলই, চলল হাতাহাতিও।

আরও পড়ুন: করোনা আতঙ্কে বাড়ি থেকে কাজ, প্রতিদিন বিনামূল্যে ৫ জিবি ডেটা দিচ্ছে বিএসএনএল

কী ব্যাপার? গুজব রটেছে, করোনা মোকাবিলার জন্য এবার নাকি টিউবওয়েলগুলিতেও কীটনাশক দেওয়া হবে! পানীয় জল আর পাওয়া যাবে না! আর তাতেই ঘটে বিপত্তি। যদিও চিকিৎসকরা জানিয়েছেন,করোনা ভাইরাস জলবাহিত নয়। টিউবওয়েল কো দূর অস্ত, পুকুরের জল থেকেও সংক্রমণের কোনও আশঙ্কা নেই।