করোনাভাইরাসে আতঙ্কে কাঁপছে গোটা বিশ্ব। দিনে দিনে এই মারণ ভাইরাসের আক্রান্তের সংখ্যা দ্রুত বৃদ্ধি পাচ্ছে। এর প্রভাবে রাজ্য-সহ দেশের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, অফিস, পাবলিক প্লেসগুলো বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। পরিস্থিতি আয়ত্তে আনতে সংস্থাগুলি বাড়ি থেকে কাজ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। পাশাপাশি প্রায় গোটা দেশ লকডাউনের পথে হাঁটার সিদ্ধান্ত নিলে, বাড়ির বাইরে যাওয়াতেও নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। তাই এই মূহূর্তে বাড়ি থেকে কাজ করাই নিরাপদ বলে মনে করছে গোটা দেশ। তবে অফিসের কাজ বাড়ি থেকে করার ক্ষেত্রে সম্মুখীন হতে হয় বহু সমস্যার। কারেন্ট অফ বা নেটের সমস্যা এক বিরাট বাধা সৃষ্টি করতে পারে বাড়ি থেকে কাজ করার ক্ষেত্রে। তাই এমন পরিস্থিতিতে গ্রাহকেরা যাতে নিশ্চিন্তে বাড়ি থেকে কাজ করতে পারে তার জন্য সাহায্যের হাত বাড়ালো বিএসএনএল সংস্থা।

আরও পড়ুন- করোনা আতঙ্কে ওয়ার্ক ফ্রম হোম, সুষ্ঠভাবে কাজ করতে মাথায় রাখুন এই বিষয়গুলি

দেশের বেশিরভাগ কর্মচারী তাদের কাজ সারছেন বাড়ি থেকে। দেশের এমন পরিস্থিতি সামাল দিতে গৃহবন্দী হয়েছে সাধারণ মানুষ। দেশের এমনই এক সঙ্কটজনক পরিস্থিতিতে এক অভাবনীয় অফার নিয়ে হাজির হয়েছে বিএসএনএল সংস্থা। যারা এই পরিস্থিতেও নিজেদের কাজ বাড়ি থেকে চালিয়ে যাচ্ছেন তাঁদের কথা মাথায় রেখেই এই নতুন প্ল্যান বাজারে এনেছে এই রাষ্ট্রায়ত্ত টেলিকম সংস্থা। যাতে বাড়ি থেকে কাজের সময় কোনও ডেটা নিয়ে সমস্যায় না পড়তে হয় সেই কথাই ভেবে আনা হয়েছে এই প্ল্যান। দেশের বিভিন্ন রাজ্যে ইতিমধ্যেই চালু হয়েছে এই প্ল্যান। নতুন এই প্ল্যানে বিএসএনএল গ্রাহকরা পাবেন প্রতিদিন ৫ জিবি করে অতিরিক্ত ডেটা।

আরও পড়ুন- আরও ভয়ঙ্কর হয়েছে করোনাভাইরাস, জানুন এই সময় কোনও জিনিসগুলি করবেন এবং কোনটা করবেন না

নেট-এর জন্য যাতে কোনও ভাবেই আপনার কাজের ক্ষতি না হয়, তাই এই অতিরিক্ত প্ল্যান দেওয়ার কথা ভেবেছে এই সংস্থা। গ্রাহকরা ১০ এবিপিএস স্পিডে প্রতিদিন ৫ জিবি ডেটা ব্যবহারের সুযোগ। তবে এই অফার একমাত্র যাদের ল্যান্ডলাইন কানেকশন রয়েছে তারাই ব্যবহার করতে পারবেন। এমনকী এই প্ল্যানের জন্য বারতি কোনও টাকা দিতে হবে না বলেও জানিয়েছে সংস্থা। সম্পূর্ণ বিনামূল্যে এই অতিরিক্ত ৫ জিবি ডেটা দেবে সংস্থা। তবে সংস্থার তরফ থেকে এও জানানো হয়েছে,৫ জিবি ডেটা শেষ হয়ে গেলে ইন্টারনেট স্পিড ১ এমবিপিএসে নেমে আসবে। তাঁদের এই নতুন প্ল্যানে বহু গ্রাহকের উপকার হবে বলে আশাবাদী সংস্থা।