উলটপুরাণ! লকডাউনের মাঝে রাস্তায় ভিড় সরাতে গিয়ে এবার আক্রান্ত হলেন পুলিশকর্মীরাই। চলল ইঁটবৃষ্টি।  শুধু তাই নয়, অভিযুক্তদের ধরতে গেলে আবার পুলিশের সঙ্গে স্থানীয় বাসিন্দাদের রীতিমতো খণ্ডযুদ্ধে বেঁধে যায়। আহত হয়েছেন চারজন পুলিশকর্মীরা। ঘটনাস্থল উত্তর দিনাজপুরের ইসলামপুর।

আরও পড়ুন: একদিনে আক্রান্ত ১১, রাজ্য়ে করোনা সংক্রমিতের সংখ্যা বেড়ে ৪৯

ঘটনার সূত্রপাত শুক্রবার রাতে। ইসলামপুর শহরের পুরনো দমকল এলাকায় একটি ক্লাবের সামনে আড্ডা মারছিলেন বেশ কয়েকজন। তখন রাস্তায় টহল দিচ্ছিল পুলিশ। কর্তব্যরত আধিকারিকরা ওই যুবকদের বাড়ি চলে যেতে বলেন। অভিযোগ, বারণ না শুনে রীতিমতো তর্কাতর্কি শুরু করেন ওই যুবক। বাঁশ-লাঠি দিয়ে কর্তব্যরত পুলিশকর্মীদের বেধড়ক মারধর করা হয়। খবর পেয়ে যখন জেলা পুলিশের পদস্থ আধিকারিকরা ঘটনাস্থলে পৌঁছন, তখন পরিস্থিতি অগ্নিগর্ভ হয়ে ওঠে। পুলিশকে লক্ষ্য করে ইঁটবৃষ্টি করতে শুরু করেন স্থানীয় বাসিন্দারা। ইঁটে আঘাতে গুরুতর জখম চারজন। এরপরই শুরু হয় লাঠিচার্জ, ছত্রভঙ্গ হয়ে যান বিক্ষোভকারীরা। ঘটনায় কাউকে এখনও পর্যন্ত গ্রেফতার করা হয়নি। শনিবার সকাল থেকে এলাকায় চলছে পুলিশি টহলদারি।

আরও পড়ুন: করোনা মোকাবিলায় বিধায়কই 'স্বাস্থ্যকর্মী', এলাকায় ঘুরছেন থার্মোমিটার হাতে\

আরও পড়ুন: লকডাউনে লক্ষাধিক টাকা লুট, পলাতক রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের এজেন্ট দম্পতি

করোনা সতর্কতায় রাজ্যে লকডাউন চলছে। কিন্তু লকডাউন মানতে চাইছেন না অনেকেই। সকাল-সন্ধে নানা অছিলায় রাস্তা বেরিয়ে পড়ছেন তাঁরা। আড্ডা চলছে পাড়া মোড়ে, চায়ের দোকান। নজর পড়লেই আইনভঙ্গকারীদের সতর্ক করছেন পুলিশকর্মীরা। কোথাও কোথাও আবার লাঠিচার্জও করা হচ্ছে। এবার কিন্তু পাল্টা আক্রমণের মুখে পড়লেন পুলিশকর্মীরাই।