করোনা রুখতে রাজ্যজুড়ে লকডাউন ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু নিয়ম ভেঙে যে অনেকেই রাস্তায় বেরোচ্ছেন! আইনভঙ্গকারীদের এবার  রীতিমতো কান ধরে উঠবোস করাল পুলিশ! বুধবার দিনভর এমনই ঘটনা ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগণার পুলিশ জেলা বারুইপুরের সর্বত্রই।

আরও পড়ুন: লকডাউনে বাধা, পুলিশকে হেনস্থার অভিযোগে গ্রেফতার তৃণমূল কাউন্সিলর

জেলা হোক শহর, করোনা ভাইরাসের আতঙ্কে এখন কাঁপছে গোটা রাজ্য। কিন্তু লকডাউন জারি করেও তো মানুষকে গৃহবন্দি করে রাখা যাচ্ছে না! নানা অছিলায় এখনও রাস্তায় বেরোচ্ছেন অনেকেই। কেউ কেউ তো আবার মাস্ক পরারও প্রয়োজন বোধ করছেন না। ভিড় বাড়ছে পাড়ার চায়ের দোকানেও। তাহলে উপায়? মানুষকে ঘরমুখো করতে রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে রাস্তায় টহলটারি শুরু করেছে পুলিশ। আইন ভাঙলেই লাঠি চালাচ্ছেন উর্দিধারীরা। 

আরও পড়ুন: করোনা প্রতিরোধে সচেতন স্থানীয়রাই, বাঁকুড়ার এই গ্রামে বহিরাগতদের প্রবেশে জারি নিষেধাজ্ঞা

বুধবার বেলা বাড়তেই দক্ষিণ ২৪ পরগণার ক্যানিং, কাশিপুর, জয়নগর, নরেন্দ্রপুর-সহ বিভিন্ন জায়গায় টহলদারি শুরু করে বারুইপুর জেলা পুলিশ ও ট্রাফিক গার্ডের কর্মীরা। বারুইপুরের আরওবির মুখে যখন নাকা চেকিং চলছিল, তখন যাঁরা রাস্তা বেরিয়েছিলেন, তাঁদের সকলেই চিহ্নিত করা বেধড়ক লাঠিপেঠা করা হয়। এমনকী, রাস্তায় দাঁড় করিয়ে আইনভঙ্গকারীদের কাঠ ধরে উঠবোসও করান কর্তব্যরত পুলিশকর্মীরা। বারুইপুর পুলিশ জেলায় সুপার রসিদ মুনির খানের সাফ কথা, করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে দেশজুড়ে লকডাউন জারি করা হয়েছে। সাধারণ মানুষকে সুস্থ রাখতে জীবন বিপন্ন করে পথে নেমেছেন পুলিশকর্মীরা। কিন্তু বারবার সতর্ক করা সত্ত্বেও অনেকেই কথা শুনছেন না। আগামীদিনে প্রয়োজনে লকডাউন সফল করতে আরও কড়া পদক্ষেপ করা হবে।