এই ঘটনাটি ঘটেছে মোক্সিকোয়। মেক্সিকোর জেনারেল লা ভিলায় সিটি হসপিটালে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ভর্তি হন বছর ৩৪ এর আন্নামারিয়া জোসে রাফেল গোঞ্জালেস। গর্ভবতী থাকাকালীন টেস্টের মাধ্যমে ধরা পরে নভেল করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত আন্নামারিয়া জোসে। করোনা উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন আন্নামারিয়া।

আরও পড়ুন- লকডাউনের জের, নির্জনতার সুযোগে সমুদ্র সৈকত দখল করল কয়েক লক্ষ কচ্ছপ

২৭ মার্চ রাত ২টোর সময় যমজ সন্তানের জন্ম দেন আন্নামারিয়া। মেক্সিকো সিটির হসপিটালের চিকিৎসরা জানান তাঁর একটি ছেলে এবং একটি মেয়ে সন্তান হয়েছে। হাসপাতাল চিকিৎসদের মধ্যে একজন মজার ছলেই আন্নামারিয়া-কে বলেন তাঁর ভাইরাস জোসে মিগুয়েল গঞ্জালেজ নামে একটি ছেলে এবং কারোনা জোসে মিগুয়েল গোঞ্জালেস নামের একটি মেয়ে হয়েছে। নাম দুটো আন্নামারিয়ার খুব পছন্দ হয় তাই তাঁর সন্তানদের নাম তিনি করোনা ও ভাইরাস রাখারই সিদ্ধান্ত নেন।

আরও পড়ুন- শুধু লকডাউনে হবে না, করোনা ঠেকাতে প্রয়োজন পরীক্ষার জানাল হু

মেক্সিকো সিটি হাসপাতালের চিকিৎসক এদুয়ার্দো ক্যাস্তিলাস স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমে জানিয়েছেন, আমি নেহাত মজার ছলেই নাম দুটো বলে ফেলেছিলাম তবে আন্নামারিয়া যে সত্যিই তাঁর সন্তানদের নাম করোনা ও ভাইরাস রাখার সিদ্ধান্ত নেবে তা আশা করিনি। আপাতত মা ও তাঁর দুই সন্তানই সুস্থ আছে বলে আনন্দিত গোটা মেক্সিকো সিটি হাসপাতাল। আন্নামারিয়ার ঠিক দুই সপ্তাহ পরে যুক্তরাষ্ট্রের এক হাসপাতালে ভর্তী হওয়ার কথা ছিল ডেলিভারির জন্য। তবে সীমান্তে পৌঁছনোর আগেই শারীরিক অবনতির জন্য বাধ্য হয়ে মেক্সিকো সিটি হাসপাতালে ভর্তী হতে হয়। সন্তানের এমন নাম প্রকাশ্যে আসতেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল আন্নামারিয়া জোসে রাফেল।