বিশ্বকাপে জন্ম হয় নতুন নতুন তারকার। বৃহস্পতিবার লিডসে, ওয়েস্টইন্ডিজের বিরুদ্ধে আফগানিস্তানের পরাজয় হলেও সম্ভবত আগামীদিনের তারকা তারা পেয়ে গেল। আফগান তরুণ উইকেটরক্ষক ইকরাম আলি খিল ভাঙলেন  সচিন তেন্ডুলকরের ১৭ বছরের পুরনো এক বিরল রেকর্ড।

১৯৯২ সালের বিশ্বকাপ দেখেছিল ভারতের 'বিস্ময় বালক' সচিন তেন্ডুলকরকে।   নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে সেই বিশ্বকাপের ম্যাচে ১৮ বছরের সচিন ৮৪ রান করেছিলেন।এতদিন বিশ্বকাপে কোনও টিনএজারের করা সেটাই সর্বোচ্চ রান ছিল।

আরও পড়ুন - পথ হারিয়েছে আফগান ক্রিকেট - ভারত ম্যাচের আগে অগোছালো অবস্থা রশিদদের

আরও পড়ুন - ৫০০ রান তোলার চেষ্টা করবে পাকিস্তান, বাংলাদেশকে আউট করবে ৫০ রানে

আরও পড়ুন -বিশ্বকাপের শেষটা হল না জমাটি, তারপরেও তিনিই ইউনিভার্স বস

বৃহস্পতিবার ওয়েস্টইন্ডিজের বিরুদ্ধে ১৮ বছরের ইকরাম করলেন ৮৬। ছাপিয়ে গেলেন সচিনকে। তবে দলকে জেতাতে পারলেন না। ওয়েস্টইন্ডিজের ৩১২ রান তাড়া করে ২৩ রান আগেই থামে আফগানিস্তান। গত বছর অনুর্ধ্ব - ১৯ বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে উঠেছিল আফগান দল। সেই দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি।

সচিনের মতো কিংবদন্তির রেকর্ড ভেঙে স্বাভাবিকভাবেই দারুণ খুশি ইকরাম। তবে তাঁর আদর্শ প্রাক্তন শ্রীঙ্কার উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান কুমার সাঙ্গাকারা বলে জানিয়েছেন তিনি। সাঙ্গা যেভাবে প্রান্ত বল করে খেলতেন এবং প্রয়োজন মতো বাউন্ডারি মারতে পারতেন, সেটাই তাঁকে টানে বলে জানান তরুণ আফগান উইকেটরক্ষক।  

রেকর্ড করলেও শতরান করার সুযোগ হারানোয় তিনি বেশ হতাশশ। তার থেকেএওএ বেশি হতাশ দল না জেতায়। তিনি কিন্তু আফগানদের বিশ্বকাপের প্রথম ১৫ জনের দলে ছিলেন না তিনি। হাঁটুর চোটের কারণে তাদের প্রথম উইকেটরক্ষক মহম্মদ শাহজাদ ছিটকে যাওয়ার পর তাঁকে দলে নেওয়া হয়েছিল।