বিশ্বকাপে বিরাট কোহলিদের পারফরম্যান্সের কাঁটাছেঁড়া করতে চলেছে বিনোদ রাইয়ের নেতৃত্বাধীন প্রশাসক কমিটি। বিশ্বকাপে সেমি ফাইনালে উঠলেও ভারতীয় দলের পারফরম্যান্স নিয়ে সাধারণ ক্রিকেট সমর্থকদের মধ্যেও বেশ কিছু প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। এবার সরাসরি অধিনায়ক বিরাট কোহলি এবং কোচ রবি শাস্ত্রীর থেকে সেরকমই কিছু প্রশ্নের উত্তর চাইতে পারেন বিনোদ রাইরা। 

আরও পড়ুন- দুই সেমিতে দুই বড় ভুল, শিকার ধোনি ও জেসন রয়! ক্ষোভের নিশানায় আইসিসি

বিরাট এবং শাস্ত্রীর সঙ্গে মুখোমুখি বসার কথা নিজেই সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন সুপ্রিম কোর্ট নিযুক্ত প্রশাসক কমিটির প্রধান বিনোদ রাই। বিশ্বকাপ অভিযানের পরে অধিনায়ক, কোচ-সহ দলের প্রায় সব সদস্যই ছুটি কাটাতে গিয়েছেন। তাঁরা দেশে ফিরলেই এই বৈঠক হতে পারে। 

আরও পড়ুন- ধোনি আউট হতেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়লেন শ্রীকান্ত! একই পরিণতি বিহারেও

সূত্রের খবর, মূলত তিনটি প্রশ্ন রাখা হবে বিরাটদের সামনে। প্রথমত, চার নম্বরে অম্বাতি রায়ডুকে  নিয়ে যদি টিম ম্যানেজমেন্ট সন্তুষ্ট নাই হয়ে থাকে, তাহলে কেন তাঁকে বিশ্বকাপের আগে পর্যন্ত ওই জায়গায় খেলানো হল? এছাড়া দলে তিনজন বিশেষজ্ঞ কিপারকে নেওয়ার যুক্তিই বা কী, তাও জানতে চাওয়া হবে শাস্ত্রী-বিরাট জুটির কাছে। বিশেষত, যে দীনেশ কার্তিক সাম্প্রতিক কালে একদিনের ক্রিকেট থেকেই দূরে ছিলেন এবং আইপিএলেও আহামরি পারৎফরম্যান্স করেননি, তাঁকে দলে নেওয়ার কারণও ব্যাখ্যা করতে হবে বিরাটদের। আর সবথেকে বড় যে প্রশ্ন সেমিফাইনালে হারের পরে উঠে আসছে, কেন সাত নম্বরে নামানো হল মহেন্দ্র সিং ধোনিকে? বিরাট এবং রবি শাস্ত্রীকে এই কঠিন প্রশ্নের জবাবও দিতে হবে। এর পাশাপাশি আগামী বছর টোয়েন্টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রস্তুতি নিয়েও এই বৈঠকে আলোচনা হওয়ার কথা। 

শোনা যাচ্ছে, ব্যাটিং কোচ সঞ্জয় বাঙ্গারের পরামর্শেই সেমিফাইনালে সাত নম্বরে নামানো হয়েছিল ধোনিকে। সেক্ষেত্রে প্রশ্ন উঠছে, ক্ষমতাবলে কেন বাঙ্গারের সিদ্ধান্ত বদলালেন না প্রধান কোচ রবি শাস্ত্রী? দেশে ফেরার পরে তাই বেশ কিছু কঠিন বাউন্সারের মুখোমুখি হওয়ার জন্য তৈরি থাকতে হবে বিরাট এবং শাস্ত্রীকে। দলের কোচের পদে শাস্ত্রীর ভবিষ্যৎ কী, তা নিয়েও ইতিমধ্যে নানা গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে।