প্রাক্তন পাক অলরাউন্ডার আব্দুর রাজ্জাক কি ভারতে চাকরি খুঁজছেন? এদিন হার্দিক পাণ্ডিয়াকে নিয়ে তিনি এমন কিছু কথা বললেন, তা শুনলে মনে হবে সত্যি রাজ্জাক ভারতে কোনও একটা চাকরি চাইছেন। তিনি বললেন, হার্দিক পাণ্ডিয়ার ব্য়াটিং টেকনিকে নাকি বেশ কিছু ভুল আছে, যা তাঁর চোখে ধরা পড়েছে। তাঁকে দায়িত্ব দেওয়া হলে তিনি কয়েকদিনেই হার্দিককে বিশ্বের সেরা অলরাউন্ডারদের একজন করে তুলবেন।

বৃহস্পতিবার, বিশ্বকাপ ২০১৯-এর ওয়েস্টইন্ডিজের বিরুদ্ধে হার্দিক বেশ দ্রুত গতিতে ৪৬ রান করে যান। দোনির সঙ্গে ৭০ রানের জুটি গড়ে ভারতকে ২৬৮/৭ স্কোরে পৌঁছে দেন। বল হাতেও ২টি উইকেট নেন।

আরও পড়ুন - ভারত-পাকিস্তান - '৪৭-এ ভাগ করেছিল ইংরেজরা, বিশ্বকাপে মিলিয়ে দিল তারাই

আরও পড়ুন - মন জুড়ে ২০১১, এবার লর্ডসে হাতে চাই কাপ - সোজাসাপ্টা রকস্টার হার্দিক, দেখুন ভিডিও

আরও পড়ুন - জল্পনার অবসান, সামনে এল ভারতীয় দলের অ্যাওয়ে জার্সি! সত্যিই কি পুরো কমলা, দেখুন

এরপরই সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রাক্তন পাক অলরাউন্ডার লেখেন, বৃহস্পতিবার তিনি হার্দিকের ব্যাটিং কুঁটিয়ে দেখেছেন। তাতে তাঁর মনে হয়েছে, হল জোরে মারার সময়, ভারতীয় অলরাউন্ডারের দেহের ভারসাম্য ঠিক থাকছেন না। এছাড়া ফুটওয়ার্কেও ত্রুটি রয়েছে।

এরপর আরও একটি টুইট করে রাজ্জাক বলেন, সংযুক্ত আরব আমিরশআহির মতো কোতাও যদি তিনি হার্দিককে কোচিং করাতে পারতেন, তাহলে হার্দিককে তিনি পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ অলরাউন্ডার অথবা শ্রেষ্ঠদের মধ্যে একজন করে তুলতে পারতেন। বিসিসিআই চাইলে তিনি সবসময় কোচিং করাতে রাজি।

তাঁর এই পোস্টের মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা গিয়েছে। কেউ কেউ তাঁর কেরিয়ারে তিনি কত বড় অলরাউন্ডার ছিলেন, কত ভাল খেলতেন সেই কথা তুলে তাঁ এই প্রস্তাবকে সাধুবাদ জানিয়েছেন। আবার কেউ বলেছেন, ভারতের ক্রিকেটারদের কথা না ভেবে পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের ভাল করে ট্রেনিং দিতে।