খারাপ দিন সবারই যায়। কিন্তু ধোনির একটা দিন খারাপ গেলেই লোকে কথা বিভিন্ন কথা বলতে থাকে। ধোনি একজন কিংবদন্তি - ওয়েস্টইন্ডিজ ম্য়াচ জিতে উঠেই ধোনিকে এরকমই প্রশংসায় ভরিয়ে দিলেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি। অধিনায়ক তাঁর দলের সদস্যদের হয়ে ব্যাট ধরবেন এটা একেবারেই স্বাভাবিক ঘটনা। কিন্তু,  কোহলি 'লোকে' বলতে কাদের ইঙ্গিত করেছেন তাই নিয়েই প্রশ্ন উঠেছে।

আফগানিস্তান ম্যাচের পরই ধোনির মন্থর ব্যাটিং-এর সমালোচনা হয়েছিল। আর সমালোকদের প্রথম সারির নামটা ছিল সচিন তেন্ডুলকর। সচিন সাফ জানিয়েছিলেন, মাঝের ওভারে ভারতের ব্যাটিং-এ তিনি সন্তুষ্ট নন। অতিরিক্ত সতর্ক হয়ে ব্যাট করেছেন ধোনি-কেদার যাদবরা। এরপর ওয়েস্স্টইন্ডিজ ম্যাচেও অত্যন্ত ধীর গতিতে শুরু করেন ধোনি। পরের দিকে অবশ্য রান তোলার গতি কিছুটা বাড়িয়েছিলেন।

আরও পড়ুন - ওয়েস্টইন্ডিজের বিরুদ্ধে ভূবি না শামি - বিস্ময়কর উত্তর দিলেন সচিন

আরও পড়ুন - এমনকী সচিনেরও নেই ছাড়! ২৪ বছর ক্রিকেট সেবার পর জুটল তীব্র অপমান

আরও পড়ুন - ভারতের ব্যাটিং-এ অসন্তুষ্ট সচিন! নিশানায় দুই ব্যাটসম্যান

 

'লোকে' বলতে কোহলি কী সচিনের কথাই বললেন? এই প্রশ্ন কিন্তু উঠে গিয়েছে। সচিন বলেছিলেন স্পিনারদের বিরুদ্ধে ধোনি অতি রক্ষণাত্মক ব্যাটিং করেছিলেন। সচিনের একসময়ের ওপেনিং জুটি বীরেন্দ্র সেওয়াগের গলাতেও কিন্তু সচিনের বক্তব্যেরই সুর শোনা গিয়েছে।

বৃহস্পতিবার ম্যাচ চলাকালীনই একটি টুইট করে সেওয়াগ বলেন, আফগানিস্তান ম্যাচে রশিদ খান তাঁর প্রথম পাঁচ ওভারে দিয়েছিলেন ২৫, আর শেষ ছয় ওভারে ১৩। ফাবিয়ান অ্য়ালেনও প্রথম পাঁচ ওভারে ৩৪ রান দেওয়ার পর শেষ ৫ ওভারে দিয়েছেন ১৮। স্পিনারদের শেষ ওবারগুলি ধোনিই খেলেছেন। কাজেই নাম না করলেও সেওয়াগ ঘুরিয়ে ধোনির কথাই যে বলেছেন, তা সহজেই বোঝা যায়। এতেই বর্তমান ভারতীয় দলের সদস্যরা বেশ চটেছেন বলে মনে করা হচ্ছে। অন্তত অধিনায়ক ঠারে ঠারে তাই বুঝিয়ে দিয়েছেন।

সচিন বলেছিলেন মাঝের ওভারে ধোনিকে বেশ দিশাহারা দেখিয়েছে। মনে হয়েছে কি করবেন বুঝে উঠতে পারছেন না। অথচ বিরাট সাফ জানালেন কী করতে চাইছেন ধোনি তা খুব ভালভাবেই জানেন। জানান দলে যে কয়েকজন ক্রিকেটার আছেন যারা খেলতে খেলতে পরিস্থিতি সঠিকভাবে বুঝে পরিকল্পনা করতে পারেন, তাঁদের একজন হলেন ধোনি। ওয়েস্টইন্ডিজ ম্যাচেও ইনিংসের মাঝেই নাকি ধোনি বুঝে গিয়েছিলেন ৩০০ নয়, এই উইকেটে ২৬০ রানই বড় স্কোর, এমনই দাবি কোহলির।

ক্রিকেট মহলে এখন আলোচনা ধোনির প্রশংসা করে কী পরোক্ষে সচিনকেই ঠুকলেন তাঁর যোগ্য উত্তরসুরী বিরাট?