ম্য়াঞ্চেস্টারে মঙ্গলবার ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯-এর প্রথম সেমিফাইনালে মুখোমুখি ভারত ও নিউজিল্যান্ড। আর এই ম্যাচে ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলির জন্য টস জেতাটা হতে চলেছে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এর পিছনে মাঠের ও মাঠের বাইরের বেশ কয়েকটি কারণ রয়েছে।

ইংল্যান্ডে একমাসের উপর হল খেলা চলছে। প্রত্যেকটি মাঠেই ক্রমেই পিচগুলি মন্থর থেকে মন্থরতর হতে শুরু করেছে। তার উপর বিশ্বকাপের মতো বড় টুর্নামেন্টে থাকে প্রত্যাশার চাপ। এই দুইয়ের সমন্বয়েই সম্ভবত চলতি ক্রিকেট বিশ্বকাপে বৃষ্টিতে ভেস্তে যাওয়া ৪টি ম্য়াচ বাদ দিলে যে ৪১চি খেলা হয়েছে, তার মধ্যে ২৭টিতেই জয়ী হয়েছে আগে ব্যাট করা দল। এমনকী ইংল্যান্ডের মতো দল, যাদের রান তাড়া করায় সবচেয়ে পারদর্শী বলে ধরা হয়, তারাও পাকিস্তানের বিরুদ্ধে অল্প রানের লক্ষ্যও তাড়া করতে পারেনি। টসের সময় বিরাট নিশ্চয়ই এই পরিসংখ্যান মাথায় রাখবেন।

আরও পড়ুন - মেঘলা পরিবেশে বোল্ট হতে পারেন ভয়ঙ্কর সুন্দর! ভারতকে ভাবাচ্ছে মিডল অর্ডারই

আরও পড়ুন - ভারত বনাম নিউজিল্যান্ড - চার প্রধান তারকা সংঘাত, যা প্রভাব ফেলবেই ম্যাচের ফলাফলে

আরও পড়ুন - ম্যাঞ্চেস্টারের আকাশে প্লেন ওড়া বন্ধ, মেঘ জমা নয়! ম্য়াচ ভেস্তে গেলে কি হবে

ম্যাঞ্চেস্টারে এখনও পর্যন্ত বিশ্বকাপের মোট ৫টি ম্য়াচ হয়েছে। তারমধ্যে ছিল ভারত-পাকিস্তান হাইভোল্টেজ ম্যাচও। সেই ম্য়াচে টসে জিতে ভারতকে আগে ব্য়াট করতে পাঠানোর জন্য সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন পাকিস্তানি অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ। শুধু ওই ম্য়াচেই নয়, এই কেন্দ্রে হওয়া সবকটি ম্য়াচেই কিন্তু জয়ী হয়েছে আগে ব্যাট করা দলই।

এর সঙ্গে রয়েছে বৃষ্টির পূর্বাভাস। লন্ডনের আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে ম্যাচের আগে এবং ম্য়াচ চলাকালীন বৃষ্টি হওয়ার জোর সম্বাবনা রয়েছে। একদিন হাতে অতিরিক্ত রাখা হয়েছে, কিন্তু তাও সাবধানের মার নেই। কারণ বৃষ্টিতে সময়ের ঘাটতি হলেই ডাকওয়ার্থ ও লুইস সাহেবের অদ্ভুত হিসেব-নিকেশ শুরু হবে। আর ক্রিকেট দুনিয়ার সবাই জানে, এদের হিসেবে পরে ব্যাট করা দলই বেশিরভাগ ক্ষেত্রে সমস্যায় পরে। তাই টসে জিতে বিরাট আগে ব্যাট করে নিতেই চাইবেন।

অধিনায়ক কোহলির অবশ্য টস ভাগ্যটা সেই রকম ভাল না। ৭৬টি ম্যাচে অধিনায়কত্ব করে তিনি ৩৫টি ম্য়াচে টসে জিতেছেন, বাকি ৪১টি ম্যাচে টস ভাগ্য তাঁর সঙ্গে থাকেনি।