আধুনিক ক্রিকেটের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান তিনি। বর্তমানে ক্রিকেট বিশ্বে যে 'ফ্যাভ ফোরের' কথা বলা হয় তার মধ্যে অন্যতম স্মিথ। বাকিরা হলেন বিরাট কোহলি, কেন উইলিয়ামসন ও জো রুট। বিশেষত টেস্ট ক্রিকেটে এই মুহূর্তে স্টিভ স্মিথকেই বিশ্বের সেরা ব্যাটসম্যান মানেন অনেক ক্রিকেট বিশেষজ্ঞই। টেস্টে ৭৩টি ইনিংসে স্মিথের সংগ্রহ ৭ হাজার ২২৭ রান, ২৬টি সেঞ্চুরি ও ২৯টি হাফ সেঞ্চুরি, গড় ৬২-রও বেশি।  ওয়ান ডে ক্রিকেটে ১১০টি ইনিংসে স্টিভ স্মিথের সংগ্রহ ৪ হাজার ১৬২ রান, ৯টি একশো ও ২৫টু হাফ সেঞ্চুরি, গড় ৪২-র বেশি। স্মিথকে আউট করতে গেলে কালঘাম ফেলতে হয় বিশ্বের তাবড় তাবড় বোলারদের। এহেন ব্যাটসম্যানকে অনায়াসের নাকি আউট করে দেবেন এক বোলার। তিনি নিজেই স্বয়ং এই দাবি করেছেন। তিনি অন্য কেউ নয়, পাকিস্তানের প্রাক্তন স্পিড স্টার, রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেস শোয়েব আখতার।

আরও পড়ুনঃসন্দেশ ঝিঙ্গান ও বালা দেবীকে অর্জুন পুরষ্কারের জন্য মনোনীত করল এআইএফএফ

শোয়েব আখতারের মতে, অস্ট্রেলিয়ার তারকা ব্যাটসম্যান স্টিভ স্মিথের ব্যাটিং স্টান্স অদ্ভুত প্রকৃতির। সাধারণত এ রকম ব্যাটিং স্টান্স অন্য কারওর নেই। মাত্র চারটি বল খরচ করেই তিনি স্মিথকে আউট করে ফেলতেন বলেও জানিয়েছেন প্রাক্তন পাক তারকা। শোয়েবের দুরন্ত গতির বাউন্সার সামলাতে অনেকেই পারতেন না। অনেকেই বাউন্সারের আঘাতে রক্তাক্ত হয়েছেন। স্মিথকে ফেরাতে গতিশীল বাউন্সারই শোয়েবের ব্রহ্মাস্ত্র। শোয়েব আখতার বলেছেন, পরপর তিনটি মারাত্মক বাউন্সার দিতেন। তাতে ভীত ও বিব্রত হতেন অজি তারকা। আর চতুর্থ বলে স্মিথকে আউট করে দিতেন বলে জানিয়েছেন শোয়েব আখতার। তার সময়ে স্টিভ স্মিথ খেললে বাউন্সার দিয়ে তাকে আঘাতও করতেন বলে জানিয়েছেন শোয়েব আখতার।

আরও পড়ুনঃ'সচিন সকলের কাছে রোল মডেল, তবে রান তাড়া করার ক্ষেত্রে এগিয়ে বিরাট', মন্তব্য ডিভিলিয়ার্সের

আরও পড়ুনঃভারতের মাটিতে আয়োজিত অনুর্ধ্ব ১৭ মহিলা বিশ্বকাপের নয়া সূচি ঘোষণা করল ফিফা

করোনা ভাইরাসের জেরে ঘরবন্দি জীবন কাটাচ্ছেন পার্ক্তন পাক তারকা। পরিবারের সঙ্গে সময় কাটানোর পাশাপাশি সোশ্যাল মিডিয়ায়ও অনেক বেশি সক্রিয় তিনি। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়াতেই প্রশ্নের উত্তরে স্মিথ সম্পর্কে মন্তব্যগুলি করেছেন শোয়েব। এর আগেও ভারত-পাক সিরিজ, থেকে ধোনির অবসর একাধিক বিষয়ে লকডাউন চলাকালীন বিতর্কিত মন্তব্য় করেছেন রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেস। যা নিয়ে জল ঘোলাও কম হয়য়নি। এবার স্মিথকে আক্রমণ শোয়েব আখতারের নতুন সংযোজন। যা নিয়ে সরগরম সোশ্যাল মিডিয়া।