গতবারের আইপিএলে ফাইনালে মুখোমুখি হয়েছিল যে দুই প্রতিপক্ষ তারাই আজকে মুখোমুখি বহু-প্রতিক্ষিত আইপিএলের ১৩ তম সংস্করণের প্রথম ম্যাচে। আবু ধাবির "আবু জায়েদ স্টেডিয়ামে" মুখোমুখি হচ্ছে ধোনির চেন্নাই সুপার কিংস এবং রোহিত শর্মার মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। গতবারের ফাইনালের দুই দলের লড়াই উত্তেজনার চরম সীমায় পৌঁছিয়েছিল। শেষপর্যন্ত মাত্র ১ রানে ম্যাচ জিতে ট্রফি হাতে তুলেছিল মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। সেই হারের বদলা নিতে আজ মরিয়া থাকবে চেন্নাই। 

আরও পড়ুনঃMatch Preview- মুম্বই ইন্ডিয়ান্স বনাম চেন্নাই সুপার কিংস, ধারে ও শক্তিতে কে এগিয়ে

বদলা নিতে মরিয়া থাকলেও কাজটা সহজ হবে না ধোনির দলের পক্ষে। কারণ বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় থাকছেন না তাদের। ব্যক্তিগত সমস্যার কারণে প্রথম দলে থাকছেন না সুরেশ রায়না এবং হরভজন সিং। আবু ধাবির পিচে হরভজন সিংয়ের মতো স্পিনারের না থাকাটা একটা বড় দুশ্চিন্তার বিষয় তাতে সন্দেহ নেই। অপরদিকে মুম্বাই অনেকটাই গোছানো। শুধু গত বছরের আইপিএল ফাইনালের হিরো এবং মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে বহুযুদ্ধের নায়ক লাসিথ মালিঙ্গাকে পাবেন না রোহিত শর্মারা। কাজেই আবু ধাবির মারাত্মক গরমে যেখানে বছরের এই সময়ে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা গিয়ে পৌঁছয় প্রায় ৪০ এর কাছাকাছি সেইখানে প্রথম ম্যাচ জিতে ছাড়তে হলে যথেষ্ট ঘাম ঝড়াতে হবে দু পক্ষকেই। 

আরও পড়ুনঃআইপিএল শুরুর আগে চেন্নাইয়ের শেষ অনুশীলন, কেন মুচকি হাসলেন ধোনি

আরও পড়ুনঃতরুণ-অভিজ্ঞের মিশ্রণে কেমন দৌড়বে মুম্বই, প্রথম ম্যাচের আগে শেষ অনুশীলনে মিলল তার ইঙ্গিত

এখনও অবধি যা খবর আছে তাতে আবু ধাবির পিচ হতে চলেছে নিজের স্বাভাবিক ধর্ম মেনে। অর্থাৎ উইকেট প্রথমে শক্ত হবে, ব্যাটসম্যানদের স্ট্রোক খেলতে সুবিধা হবে। কিন্তু ম্যাচ যত গড়াবে তত উইকেট মন্থর হতে থাকবে। তাই টসে জিতে আগে ব্যাটিং করে নেওয়াই শ্রেয়। প্রথম কয়েকটি ম্যাচে হয়তো এতটা সমস্যা নাও হতে পারে। সঠিক লেংথে বল ফেললে ভয়ংকর হতে পারেন পেসাররাও। কিন্তু যত টুর্নামেন্ট এগোবে পিচের জমাট ভাব কমবে। বল পিচে পড়ে থমকে আসতে থাকবে। ফলে টুর্নামেন্টের পরের দিকে স্লো বোলাররা অনেকটাই সুবিধা পাবেন আবু জায়েদ স্টেডিয়ামের উইকেটে।