২০১১ বিশ্বকাপের ফাইনালে গড়াপেটার তদন্ত শুরু করেছে শ্রীলঙ্কা। জোরকদমে তলছে সেই তদন্ত প্রক্রিয়া। গত তিন দিনে দেশের ক্রিকেট দলের তিন জন প্রাক্তন অধিনায়ককে জিজ্ঞাসাবাদ করল তদন্তকারীরা। সবার প্রথমে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় ১৯৯৬ সালের শ্রীলঙ্কার বিশ্বকাপ জয়ী দলের অন্থম সদস্য ও প্রাক্তন অধিনায়ক অরবিন্দ ডি সিলভাক। এরপর জেরা করা হয় ২০১১ সালে শ্রীলঙ্কা দলের অধিনায়ক কুমার সাঙ্গাকারাকে। এবার শুক্রবার জেরা করা হল দলের অপর এক প্রাক্তন অধিনায়ক মাহেলা জয়াবর্ধনকে।

আরও পড়ুনঃনেটে ফিরেই বল হাতে আগুন ঝড়ালেন মহম্মদ সামি,দেখুন ভিডিও

আগেই ঘোষণা করা হয়েছিল তদন্তের স্বার্থে জেরা করা হবে মাহেলা জয়াবর্ধনেকে। সেই মতই শুক্রবার ডেকে পাঠানো হয় তাকে। কলম্বোয় সুগথাদাসা স্টেডিয়ামে ক্রীড়ামন্ত্রকের স্পেশাল ইনভেস্টিগেশনস ইউনিটের সামনে হাজিরা দিতে দেখা যায় জয়বর্ধনেকে। শ্রীলঙ্কার এক সাংবাদিক টুইট করে এই খবর প্রকাশ্যে আনেন। পোস্ট করা ছবিতে দেখা যাচ্ছে জয়বর্ধনে নামছেন গাড়ি থেকে। সেই সাংবাদিক টুইট করেন, “গত কয়েক দিনে তিন জন প্রাক্তন অধিনায়ক ২০১১ বিশ্বকাপ ফাইনাল নিয়ে পুলিশের সামনে বিবৃতি দিলেন।” একের পর এক দেশের তাবড় তাবড় ক্রিকেটারদের জেরা মুখে পড়তে হওয়ায় সরগরম শ্রীলঙ্কার রাজনৈতিক আবহাওয়াও।

 

 

আরও পড়ুনঃফুটবল বিশ্বে ভূমিকম্প, বার্সোলোনা ছাড়ছেন কী লিওনেল মেসি

আরও পড়ুনঃঅবশেষে স্বস্তি,স্বপরিবারে করোনা মুক্ত হলেন শাহিদ আফ্রিদি

এর আগে প্রথম দিন অরবিন্দ ডি সিলভাকে টানা ৬ ঘণ্টা জেরা করা হয়েছিল। তারপর কুমার সঙ্গাকারাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে হেয়ছিল প্রায় ১০ ঘণ্টা। সঙ্গাকারাকে জেরা করার প্রতিবাদে রাস্তায় বিক্ষোভও দেখায় বিরোধী রাজনৈতিক দলের যুব শাখার কর্মীরা। এবার জেরা করা হল মাহেলা জয়াবর্ধনেকে। শ্রীলঙ্কার প্রাক্তন ক্রীড়ামন্ত্রী  মহিন্দানন্দা আলুথগামাগের অভিয়োগের ভিত্তিতে আগামী দিনে আর কোনও তারকা ক্রিকেটারকে জেরার মুখে পড়তে হবে এখন সেদিকেই নজর ওয়াকিবহাল মহলের।