প্রয়াত হলেন প্রাক্তন ক্রিকেটার তথা বর্ষীয়ান কোচ অশোক মুস্তাফি। বর্তমান বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট তথা প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের ক্রিকেট জীবনের প্রথম কোচ ছিলেন অশোক মুস্তাফি। দীর্ঘদিন ধরেই বার্ধক্যজনিত সমস্যায় ভুগছিলেন তিনি। অবশেষে বৃহস্পতিবার শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন অশোক মুস্তাফি। সল্টলেকের বাড়িতেই প্রয়াত হন বর্ষীয়ান কোচ। মৃত্যুকালে বয়স হয়েছিল ৮৬ বছর। অশোক মুস্তাফির মৃত্যুতে শোকের ছায়া বাংলার ক্রিকেট মহলে।

আরও পড়ুনঃ২৪টি গোল্ড মেডেল জয়ী প্লেয়ার বর্তমানে দিনমজুর,সাহায্যের হাত বাড়ালেন ক্রীড়ামন্ত্রী

খেলোয়ার জীবনে দীর্ঘদিন বিএনআর ক্লাবের হয়ে ক্রিকেট খেলতেন অশোক মুস্তাফি। তারপরই শুরু করেন কোচিং কেরিয়ার। এরিয়ান ক্লাবের নীচে দুঃখীরাম কোচিং সেন্টারে কোচিং করাতেন তিনি। বাবা চন্ডী গাঙ্গোপাধ্যায় ছোট্ট সৌরভকে দুঃখীরাম কোচিং সেন্টারে নিয়ে যান ক্রিকেট শেখার জন্যছোটবেলায় দুখীরাম ক্রিকেট কোচিং সেন্টারে অশোক মুস্তাফির কাছেই ক্রিকেটে হাতেখড়ি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের। ক্রিকেটের যাবতীয় প্রাথমিক শিক্ষা তাঁর কাছ থেকেই শেখেন বাংলার মহারাজ। অশোক মুস্তাফির হাত ধরে বাংলার অনেক প্লেয়ার রঞ্জিতেও খেলেছেন। 

আরও পড়ুনঃভারতের প্রাক্তন ক্রিকেট অধিনায়ক,অর্থাভাবে আজ রাস্তার ধারে বসে পাথর ভাঙছেন

আরও পড়ুনঃদেশের অধিনায়ক ছিলেন, বর্তমানে অভাবের তাড়নায় একটি চাকরির জন্য ঘুরছেন দরজায় দরজায়

সম্প্রতি গত এপ্রিল মাসে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন অশোক মুস্তফি। সেই সময় তার স্যারের শারিরীক অবস্থার কোঁজ নিয়েছিলেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। পাশে থাকার আশ্বাসের পাশাপাশি হাসপাতালে যাতে কোনও অসুবিধা না হয় তার ব্যবস্থা করেন সৌরভ। কয়েক ভেন্টিলেশনে থাকার পর কিছুটা সুস্থ হলে বাড়িতে ফিরে আসেন। অবশেষে বৃহস্পতিববার প্রয়াত হন অশোক মুস্তাফি। মেয়ে ইংল্যান্ডে থাকায় অশোক মুস্তাফির মরদেহ রাখা হয়েছে পিস হাভেনে। মেয়ে ফিরলেই শেষকৃত্য সম্পন্ন করা হবে। অশোক মুস্তাফির  প্রয়াণ বাংলা ক্রিকেটের অপূরণীয় ক্ষতি বলেই মত সকলের।