বিশ্ব জুড়ে ক্রমশ বাড়ছে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। করোনার ব্যাপক প্রভাব পড়েছে ক্রীড়া বিশ্বেও। ক্রিকেট, ফুটবল, হকি থেকে টেনিস পৃথিবী জুড়ে বন্ধ মস্ত মেজর স্পোর্টিং ইভেন্ট। ফুটবলে সবথেকে বেশি প্রভাব পড়লেও ক্রিকেটেও করোনার প্রভাব খুব একটা কম নয়। বিগত কয়েক মাসে আইপিএল সহ বিভিন্ন দেশের ফ্র্যাঞ্চাইজি টি-টোয়েন্টি লিগ ও একাধিক আন্তর্জাতিক সিরিজ স্থগিত হয়ে গিয়েছে মারণ কোভিড ১৯-এর প্রভাবে। এবার সেই তালিকায় নাম লেখাল আরও একটি আন্তর্জাতিক সিরিজ। স্থগিত হয়ে গেল বাংলাদেশ বনাম অস্ট্রেলিয়ার টেস্ট সিরিজ।

আরও পড়ুনঃক্রিকেট থেকে দূরে থাকার সময় নিয়ে মুখ খুললেন পৃথ্বী শ

জুনে বাংলাদেশ সফরে আসার কথা ছিল অস্ট্রেলিয়ার। কিন্তু, করোনা পরিস্থিতিতে আইসিসি-র বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অন্তর্গত দুই টেস্টের এই সিরিজ স্থগিত করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল দুই দেশের ক্রিকেট বোর্ড। অস্ট্রেলিয়ার টেস্ট অধিনায়ক টিম পেন সম্প্রতি সংশয় প্রকাশ করেছিলেন বাংলাদেশের বিরুদ্ধে সিরিজ হওয়ার ব্যাপারে। সেই আশঙ্কাই সত্যি হল। বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড ১১ জুন থেকে ২৩ জুন পর্যন্ত দুই টেস্টের সিরিজ স্থগিত হওয়ার কথা টুইট করে জানায়। ওই দুই টেস্ট হওয়ার কথা ছিল চট্টগ্রাম ও ঢাকায়। ভবিষ্যতে কবে এই সিরিজ হবে, তা নিয়ে দুই দেশের বোর্ড আগামী দিনে একসঙ্গে আলোচনা করে সিদ্ধান্তে পৌঁছবে।

আরও পড়ুনঃকরোনা মোকাবিলায় ফের ৩১০০ কেজি চাল বিতরণ করলেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়

আরও পড়ুনঃবিরাট কোহলিকে পিছনে ফেলে উইজডেন ক্রিকেটার্স অ্যালমনাকের ২০২০-র সেরা ক্রিকেটার হলেন বেন স্টোকস

ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার সিইও কেভিন রবার্টস বলেছেন, “সফর স্থগিত হওয়া যন্ত্রণার। কিন্তু বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডকে ধন্যবাদ আমাদের সঙ্গে একমত হওয়ার জন্য। দুই দেশের ক্রিকেট বোর্ডের কাছেই দেশবাসীর স্বাস্থ্য সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। তার জন্যই আমরা দুই টেস্টের সিরিজ স্থগিত করে দিয়েছি। ভবিষ্যতে ব্যস্ত সূচির মধ্যেই আমরা সর্বাত্মক চেষ্টা করব এই সিরিজের জন্য সময় বের করার।” এই টেস্ট সিরিজ আগেও একবার পিছিয়ে গিয়েছিল। প্রথমে এই বছরের গোড়ায় ফেব্রুয়ারিতে হওয়ার কথা ছিল এই সিরিজ। তার পর তা পিছিয়ে যায় জুনে। কিন্তু এখন তাও সম্ভব নয়।