আইপিএলের ফ্র্যাঞ্চাইজি দল কলকাতা নাইট রাইডার্স ও সানরাইজার্স হায়দরাবাদের জন্য সুখবর। প্রথম থেকেই দুই দল পাবে অস্ট্রেলিয়া ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্লেয়ারদের। কারণ করোনা ভাইরাস মহামারীর কারণে স্থগিত হয়ে গেল অক্টোবরে অস্ট্রেলিয়া বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজের মধ্যে টি-টোয়েন্টি সিরিজ। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রস্তুতি হিসেবে এই সিরিজ খেলবে বলে ঠিক করেছিল দুই দেশের ক্রিকেট বোর্ড। কিন্তু টি২০ বিশ্বকাপ বাতিল হয়ে যাওয়ায় করোনা আবহে আর এই সিরিজ খেলার ঝুঁকি নিতে রাজি নয় ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া ও উইন্ডিজ ক্রিকেট।

আরও পড়ুনঃশক্তি তো সকলের জানা, এবার জেনে নিন আইপিএলের দলগুলির দুর্বলতা

আইপিএল ২০২০ শুরু হচ্ছে সেপ্টেম্বরের ১৯ তারিখ থেকে। চলবে ১০ নভেম্বর পর্যন্ত। আর পূর্বা নির্ধারিত সূচি অনুযায়ী ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও অস্ট্রেলিয়ার মধ্য তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ হও য়ার কথা ছিল ৪, ৬ ও ৯ অক্টোবর। ফলে দুই দেশের ক্রিকেটাররা আইপিএলের শুরুতে কয়েক দিনের জন্য  ফ্র্যাঞ্চাইজি দলে যোগ দিয়ে ফের ফিরে জাতীয় দলের হয়ে সিরিজ খেলতে পছন্দ করছিলেন না। একান্তই যদি টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে হয় দুই দেশের ক্রিকেটাররা ভেবেছিলেন সিরিজের পর যোগ দেবেন আইপিএল দলের সঙ্গে।  অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট বোর্ড মঙ্গলবার সিরিজ স্থগিত করার কথা ঘোষণা করেছে। ২০২১ বা ২০২২ সালে যখন স্থগিত হয়ে যাওয়া টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ হবে, তার আগে এই সিরিজটা হবে বলে জানানো হয়েছে।

আরও পড়ুনঃসচিনকে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স দলে ফেরাতে চান রোহিত, একসঙ্গে ওপেনের ইচ্ছে প্রকাশ মাস্টার ব্লাস্টারের

আরও পড়ুনঃআইপিএলের ঢাকে কাঠি,জেনে নিন টুর্নামেন্ট নিয়ে ১০টি গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত

কলকাতা নাইট রাইডার্স ও সানরাইজার্স হায়দরাবাদ দুই দলেই বেশ কিছু প্রধান প্লেয়ার রয়েছে যায় অস্ট্রেলিয়া ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের।বিশেষে করে দুই দলের দুই প্রধান অস্ত্র কলকাতার আন্দ্রে রাসেল ও হায়দরাবাদের ডেভিড ওয়ার্নার। মরসুমের প্রথম থেকে তাদের পাওয়া যাবে না ভেবে একচু চাপে ছিল দুই দল। অবশেষে অস্ট্রেলিয়া বনাম অস্ট্রেলিয়া টি-টোয়েন্টি সিরিজ বাতিল হওয়ায় স্বস্তিতে দুই দল। আইপিএলের প্রথম থেকেই বিপক্ষকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিতে পূর্ণ শক্তির দল নিয়ে নামতে পারবে কলকাতা নাইট রাইডার্স ও সামরাইজার্স হায়দরাবাদ।