ফের বিতর্কিত মন্তব্য করে শিরোনামে পাকিস্তানের প্রাক্তন ফাস্ট বোলার শোয়েব আখতার। পাকিস্তানের সীমিত ওভারের অধিনায়ক বাবার আজমকে 'লক্ষ্যভ্রষ্ট গরু' বলে কটাক্ষ করলে 'রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেস'। নিজের দেশের অধিনায়ককে গরুর সঙ্গে তুলনা করায় শোয়েবের মন্তব্য ঘিরে শোরগোল পড়ে গিয়েছে  ক্রিকেট মহলে। শুধু বাবর আজমকে নয়, ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে পাকিস্তান টিম ম্যানেজমেন্টের ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন শোয়েব আখতার।

আরও পড়ুনঃসব বাধা টপকে রেকর্ড গড়বে এবারের আইপিএল, আত্মবিশ্বাসে ভরপুর সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়

ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজে হারতে হয়েছে পাকিস্তান দলকে। তারপরে সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচ বৃষ্টির কারণে ভেস্তে যায়। কিন্তু দ্বিতী ম্যাচে বড় রান করেও হারতে হয় রাক দলকে। নির্ধারিত ২০ ওভারে ১৯৫ রান করে পাকিস্তান। ব্যাটে ভালো পারফরম্যান্স করলেও বল হাতে বোলারদের ব্যর্থতায় ম্যাচ হারে পাকিস্তান৷ ইংল্যান্ড অধিনায়ক ইয়ন মর্গ্যানের ৩৩ বলে ৬৬ রানের দ্রুতগতির ইনিংস এবং ডেভিড মালানের ৫৪ রানের অপরাজিত হাফ-সেঞ্চুরি ইংল্যান্ডকে জয় এনে দেয়৷ দলকে সামনে থেকে নেতৃত্ব দেন মর্গ্যান৷  আর এই হারের বিশ্লেষণ করতে গিয়ে প্রাক্তন পাক পেসার শোয়েব আখতার অধিনায়ক বাবর আজমকে দায়ী করছেন। ম্যাচে তাঁকে দেখে লক্ষ্যভ্রষ্ট গরুর মতো মনে হয়েছে শোয়েবের।

আরও পড়ুনঃপ্রকাশ্যে এল রোহিত-হার্দিক-বুমরাদের রাজকীয় হোটেলের অন্দরমহলের ছবি, যা হার মানাবে রূপকথাকেও

আরও পড়ুনঃআইপিএলে তারকা হতে পারেন বাংলার এই ক্রিকেটাররা, দেখে নিন তালিকা

নিজের ইউটিউব চ্যানেলে শোয়েব আখতার বলেছেন,'বাবর আজমকে দেখে লক্ষ্যভ্রষ্ট গরুর মতো মনে হয়েছে আমার কাছে। মাঠে ছিল কিন্তু কী করতে হবে সে ব্যাপারে কোনও ধারনা ছিল না! ওর জন্য নিজের মতো করে সিদ্ধান্ত নেওয়াটা জরুরি, কারণ ভবিষ্যতে আরও ভালো অধিনায়ক হতে ওকে সাহায্য করবে।' টিম ম্যানেজমেন্টের ভূমিকা নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করে শোয়েব বলেন,'আমরা বাবর আজমকে স্বাধীনতা না-দিলে এটি জৈব নিরাপত্তাহীন বুদবুদ হয়ে থাকবে। দলের প্রতিটি সদস্যই নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। আজম এমনকি অধিনায়ক থাকবে কিনা, তাও নিশ্চিত নন৷' এছাড়া দল নির্বাচন থেকে শুরু করে বোর্ডের ভূমিকা সব কিছু নিয়েও ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন শোয়েব আখতার।