বাংলাদেশে করোনা আক্রান্তের সংখা ২,০০০ ছাড়িয়েছে। দ্রুতগতিতে  বাড়ছে মৃতের সংখ্যাও। দেশের বিপদের দিনে আগই এগিয়ে এসেছেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা। সামাজিক সচেতনতার বাার্তা দেওয়ার পাশাপাশি সরকারি তহবিলে যথাসাধ্য দিচ্ছেন অনুদান।  গত সপ্তাহেই বাংলাদেশের তারকা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান তাঁর দলীয় সতীর্থদের উদ্দেশে আবেদন করেন, সকলে যেন নিজেদের ক্রিকেট সরঞ্জাম ও জার্সি নিলাম করে দরিদ্রদের সাহায্য করেন। তারপরই বাংলাদেশের  উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম  কোভিড-১৯ আক্রান্তদের ত্রাণ তহবিলে সাহাজ্যের জন্য নিজের ব্যাট নিলাম করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

আরও পড়ুনঃরোনাল্ডো কোনও দিনই মেসির উচ্চতার ফুটবলার নন,জানালেন ডেভিড বেকহ্যাম

করোনা ভাইরাসের মহামারীর মোকাবিলায় শুরু থেকেই তৎপর বাংলাদেশের উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম। এরই মধ্যে বেশ কিছু উদ্যোগ নিয়ে প্রশংসিত হয়েছেন তিনি। এবার নিজের ব্যাট নিলামে তুলতে যাচ্ছেন মুশফিক। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ২০১৩ সালের গল টেস্টে অভিজাত ক্রিকেটে ডাবল সেঞ্চুরিয়ান ক্লাবে প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে প্রবেশ করেছিলেন মুশফিকুর রহিম। সেবার ঠিক ২০০ রান করে আউট হয়েছিলেন তিনি। করোনা মোকাবেলায় এবার সেই ঐতিহাসিক ব্যাটটিই হাতছাড়া করছেন মুশফিক। নিলামে তোলা এই ব্যাট বিক্রির টাকা ব্যবহৃত হবে করোনা মোকাবেলায়।মুশফিকুর জানিয়েছেন, ‘‘আমি আমার ব্যাটটি নিলাম করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি, যে ব্যাটে আমি দ্বিশতরান করেছিলাম।'' তিনি জানিয়েছেন, ব্যাটটির নিলাম অনলাইনে হবে।

আরও পড়ুনঃলকডাউনে নিজেই কাটলেন নিজের চুল,সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল মাস্টার ব্লাস্টারের ছবি

আরও পড়ুনঃবিছানায় কামড়া-কামড়ি মাহি-সাক্ষীর, লকডাউনে ফাঁস হল গোপন মুহূর্তের ছবি

এর আগে জাতীয় দলের অন্য ক্রিকেটারদের সঙ্গে নিজের বেতনের অর্ধেক অনুদান দিয়েছেন তিনি। এবার নিজের ব্যাট নিলামে তুলতে যাচ্ছেন মুশফিক। এমনটাই নিশ্চিত করেছেন মুশফিকুর রহিমের ম্যানেজার বর্ষণ কবির। বাংলাদেশে যেহেতু নিলামের কোনো প্ল্যাটফর্ম নেই তাই বিষয়টি এখনও আলোচনার মধ্যেই আছে বলে জানিয়েছেন তিনি। যদিও অনলাইনে ব্যাটটির নিলামের কথা জানিয়েছেন মুশপিকুররহিম।