এপার বাংলার মত ওপার বাংলতেও প্রকোপ বেড়েই চলেছে করোনা ভাইরাসের। বাংলাদেশে প্রতিদিন লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে মারণ ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা। পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে প্রশাসন চেষ্টা করলেও, কমানো যাচ্ছেনা কভিড ১৯-এর দাপট।  করোনার জেরে বন্ধ রয়েছে দেশের সমস্ত স্পোর্টিং ইভেন্ট। কিন্তু দীর্ঘদিন মাঠের বাইরে থাকায় বাংলাদেশের শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে অনুশীলন করার অনুমতি চেয়েছিলেল বাংলাদেশের প্রাক্তন অধিনায়ক তথা উইকেট রক্ষক ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম সহ অন্যান্য সিনিয়র ক্রিকেটাররা। কিন্তু বর্তমানে দেশের করোনা পরিস্থিতি এখনও কিছুটাও নিয়ন্ত্রণের মধ্যে না আসায় সেই আবেদন নামঞ্জুর করে দিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড।

আরও পড়ুনঃকরোনা ভাইরাসের আতংক থাবা বসালো স্পার্স শিবিরে

আরও পড়ুনঃস্বাস্থ্যবিধি মেনে অনুশীলন শুরু করে দিল ভারতীয় পুরুষ ও মহিলা হকি দল

দিন কয়েক আগে অনুশীলনের অনুমতি চেয়ে এই আবেদন করেছিল মুশফিকুর সহ অন্যান্যরা। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড পরিষ্কার ভাষায় জানিয়ে দিয়েছে  মিরপুর স্টেডিয়াম পুরো জীবাণুমুক্ত করার প্রক্রিয়া শেষ হয়নি। তার জন্যই অনুশীলন সম্ভব নয়। বিসিবি-র মুখ্য কার্যনির্বাহী বা চিফ এগজিকিউটিভ নিজামউদ্দিন চৌধুরী বলেছেন,'মুশফিক আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছিল। ব্যক্তিগত ভাবে ও অনুশীলন শুরু করতে বলেছিল। কিন্তু আমরা ওকে বলেছি যে তা করা এখনও নিরাপদ নয়। ওর উচিত ঘরে অনুশীলন করা। ট্রেনিং তো জরুরি বটেই, কিন্তু তার চেয়েও জরুরি হল ক্রিকেটারদের সুস্থ থাকা।'তিনি আরও বলেছেন,'আরও কয়েক জন ক্রিকেটার জানতে চেয়েছিল যে, ব্যক্তিগত ভাবে ওরা অনুশীলন শুরু করতে পারে কি না। আমাদের বক্তব্য সবার কাছেই এক। আমাদের পরিকাঠামোকে জীবাণুমুক্ত করার জন্য আমরা পরিশ্রম করছি। আর সেই কাজটা এখনও শেষ হয়নি। আমরা সার্বিক পরিস্থিতির দিকে নজর রাখছি। আমরা তাড়াহুড়ো করে সিদ্ধান্তে আসছি না। অনেক দেশই খেলাধূলা শুরু করছে। আমরাও আগামী দিনে তা করব। কিন্তু তার কোনও নির্দিষ্ট তারিখ এখনই দিতে পারছি না।' বিসিবির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, দেশের পরিস্থিতি কিছুটা নিয়ন্ত্রণের মধ্যে আসলে ও প্লেয়ারদের জন্য নির্দিষ্ট স্বাস্থ্যবিধি ঠিক করার পর তারাই অনুশীলন শুরু করবে। আর তা যতটা দ্রুত করা যায় সেই চেষ্টাই করা হচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের তরফ থেকে।তবে এই মুহূর্তে অনুমতি না পেয়ে কিছুটা হলেও হতাশ মুশফিকুর রহিম সহ বাংলাদে ক্রিকেট দলের অন্যান্য প্লেয়াররা।

আরও পড়ুনঃতৈরি হচ্ছে সম্ভাবনা,বিদেশের মাটিতেও আইপিএল করতে প্রস্তুত বিসিসিআই