জুনের ১৭ তারিখ থেকে শুরু হতে চলেছে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ। এর মধ্যেই হ্যারি কেন-দের শিবিরে থাবা বসলো করোনা আতংক। এই মুহুর্তে ইপিএলের তরফ থেকে প্রতিটি ক্লাবের প্রত্যেক খেলোয়াড় এবং কোচিং স্টাফকে বর্তমানে সপ্তাহে দু-বার করে পরীক্ষা করে দেখা হয়। সেই পরীক্ষার ভিত্তিতে টট‍্যেনহ‍্যামে একজন এর শরীরে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের লক্ষণ দেখা গেছে বলে দাবি করা হচ্ছে। দালে আলি-দের ক্লাবের তরফ থেকে একটি বিবৃতিতে জানানো হয়েছে যে তাদের লিগের তরফ থেকে জানানো হয়েছে যে তাদের ক্লাবের একজন করোনা ভাইরাসের দ্বারা সংক্রমিত। 

আরও পড়ুনঃস্বাস্থ্যবিধি মেনে অনুশীলন শুরু করে দিল ভারতীয় পুরুষ ও মহিলা হকি দল

গত মাসে তিন দফা পরীক্ষা হওয়ার পর সব দলগুলি মিলিয়ে মোট ১২ জনের দেহে এই সংক্রমণের লক্ষণ দেখা গেছে। জুন মাসের প্রথম দু দিন মিলিয়ে সবকটি ক্লাবের প্রায় ১১৯৭ জনের করোনা সংক্রমণর পরীক্ষা করা হয়েছে। তাদের মধ্যে একজনের দেহে সংক্রমণ দেখা গেছে। তিনি এখন সাতদিন নিজেকে আইসলেশনে রাখবেন বলে জানা গিয়েছে। পাঁচ দফা টেস্টের পরে গোটা লিগে আক্রান্তর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৩। 

আরও পড়ুনঃতৈরি হচ্ছে সম্ভাবনা,বিদেশের মাটিতেও আইপিএল করতে প্রস্তুত বিসিসিআই

আরও পড়ুনঃমহিলা এএফসি এশিয়ান কাপ আয়োজনের দায়িত্ব পেল ভারত, জেনে নিন বিস্তারিত

টট‍্যেনহ‍্যামের তরফ থেকে জানানো হয়েছে যিনি করোনা আক্রান্ত বলে সন্দেহ করা হচ্ছে তার আসলে করোনা হয়নি। কিছু কারণে তার নামও অপ্রকাশিত রাখা হয়েছে। যদিও তার সাতদিন আইসলেশনে থাকা নিয়ে কোনও আপত্তি জানায়নি তারা। খেলোয়াড়দের জন্য জীবাণুমুক্ত খেলার পরিবেশ তৈরি করাই এখন তাদের একমাত্র লক্ষ বলে জানিয়েছে স্পার্স। অন্যান্য সব ক্লাবের মতো তারাও ফ্রেন্ডলি ম্যাচ খেলার অনুমতি চেয়েছে যাতে খেলোয়াড়রা ম্যাচ-ফিটনেস ফিরে পায়।