কিছুদিন আগেই ভারতীয় দলের প্রাক্তন অধিনায়ক ও বর্তমানে ন্যাশনাল ক্রিকেট অ্যাকাডেমির ডিরেক্টর রাহুল দ্রাবিড় মুখ খুলেছিলেন ঘরোয়া ক্রিকেটে বয়েস ভাঁড়ানো নিয়ে। রাহুলের মতে এই বয়েস ভাঁড়ানোর সমস্যা ভারতীয় ক্রিকেটের সাংস্কৃতিক অবক্ষয়। এই সমস্যা অনেক প্রতিভাবান ক্রিকেটারকে তাঁদের প্রাপ্য সুযোগ থেকে বঞ্চিত করছে। রাহুল যা বললেন সেটা অনেকাংশেই ঠিক। বিগত কয়েক বছর ধরে বয়েস ভাঁড়ানো ভারতীয় ঘরোয়া ক্রিকেটের অন্যতম প্রধান সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে। 

আরও পড়ুন - বুমরার পর এবার চোটের জন্য ইংল্যান্ডের পথে আরও এক ভারতীয় ক্রিকেটার

এই সমস্যা সমাধানে এবার কঠোর মনোভাব নিয়ে এগোচ্ছে ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড। মঙ্গলবার রাতে বিসিসিআইয়ের পক্ষ থেকে একটি হেল্প লাইন নম্বার প্রকাশ করা হয়েছে। এই হেল্প লাইন নাম্বার দেওয়া হয়েছে বোর্ডের অধীনে থাকা সমস্ত রাজ্য সংস্থা, তাদের ক্রিকেটের ও সাপোর্ট স্টাফদের। ঘরোয়া মরসুমে সমস্ত দলের ড্রেসিং রুমে একটি ব্যানারে এই নাম্বার দেওয়া থাকবে। যাতে কোনও রকম সন্দেহ জনক কিছু পাওয়া গেলে সরাসরি বোর্ডের সঙ্গে যোগাযোগ করা যায়। 

আরও পড়ুন - চোট সারাতে এবার ইংল্যান্ড পারি দিচ্ছেন বুমরা

বয়েস ভাঁড়ানোর পাশাপাশি অ্যান্টি ডোপিং ও অ্যান্টি করাপশন সংক্রান্ত্র যে কোনও রকম সমস্যা হলেও যোগাযোগ করা যাবে ওই নম্বরে। বোর্ডের অ্যান্টি ডোপিং ও অ্যান্টি করাপশন ইউনিটও বিভিন্ন সময় ক্রিকেটারদের ক্লাস করাবে। দুর্নীতি সংক্রান্ত কোনও অভিযোগ যদি কোনও ব্যক্তি করেন তাহলে তাঁর পরিচয়ও গোপন রাখা হবে বলেই জানানো হয়েছে বোর্ডের তরফে। 

আরও পড়ুন - ডিসেম্বরের ১৯ তারিখ কলকাতায় আইপিএল নিলাম, সব থেকে বেশি টাকা নিয়ে আসরে দিল্লি