তিনি আহত, তাই ভারতের বিরুদ্ধে টি২০ সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচ থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছেন ক্যারিবিয়ান অলরাউন্ডার আন্দ্রে রাসেল। তাঁর বদলি হিসেবে জেসন মহম্মদকে দলে নিয়েছে ওয়েস্টইন্ডিজ। কিন্তু কানাডায় গ্লোবাল টি২০ লিগে কিন্তু এখনও খেলে চলেছেন 'আহত' রাসেল। এই নিয়ে বিতর্ক তৈরি হলেও তাঁকে কিন্তু আড়ালই করলেন অধিনায়ক ব্রেথওয়েট।

ভারতের বিরুদ্ধে টি২০ সিরিজে ক্যারিবিয়ান দলে নাম ছিল আন্দ্রে রাসেলের। বিশ্বকাপের সময়ই হাঁটুর চোটে ভুগছিলেন রাসেল। বিশ্বকাপের পরই অপারেশন করান। কিন্তু তারপরও তাঁর চোট সমস্যা সাড়েনি বলেই দাবি করেন এই অলরাউন্ডার। যে কারণে চলতি সিরিজের প্রথম দুটি ম্যাচ তিনি খেলতে পারবেন না বলে জানিয়ে দেন নির্বাচকদের। কিন্তু এরপরেও তিনি জিটি২০-তে ভ্যাঙ্কুভার নাইটস-এর হয়ে মাঠে নামেন রাসেল।   

আর এরপরই দেশের হয়ে না খেলে অর্থের বিনিময়ে ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট খেলার অভিযোগ উঠেছে রাসেরলের নামে। এই বিষয়ে কিন্তু তাঁর পাশেই দাঁড়িয়েছেন ক্যারিবিয়ান অধিনায়ক কার্লোস ব্রেথওয়েট। ভারতের বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচের আগে তিনি জানান, রাসেলকে নিয়ে সংবাদমাধ্যম বাড়াবাড়ি করছে। কারণ ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটে তিনি ১০০ শতাংশ সুস্থ  না হয়েই খেলছেন। যো জাতীয় দলের হয়ে করতে রপারবেন না।

ব্রেথওয়েটের মতে রাসেলকে ২২ গজে দেখে অনেকে ভাবতেই পারেন, চোট সেইরকম গুরুতর নয়। কিন্তু আসল ঘটনাটা তা নয়। রাসেল সবসময়ই খেলতে চান বলেই চোট থাকা সত্ত্বেও তিনি মাঠে নেমেছিলেন। ব্রেথওয়েটের আরও দাবি, তিনিই রাসেলকে এই সিরিজে না খেলার জন্য বলেছিলেন।

এমনিতে রাসেল সবসময়ই ওয়েস্টইন্ডিজের জন্য খেলতে চান বলেও জানিয়েছেন ক্যারিবিয়ান অধিনায়ক। তাঁর এই দেশের জন্য নিজেকে উজার করে দেওয়ার চেষ্টা দেখা গিয়েছিল বিশ্বকাপে। ম্যাচের পর ম্যাচ চোট নিয়েই খেলা চালিয়ে গিয়েছিলেন। কিন্তু তাতে লাভের থেকে ক্ষতিই বেশি হতে পারে। কারণ, চোট আরও বেড়ে যেতে পারে। সংশ্লিষ্ট মহল অবশ্য ব্রেথওয়েটের যুক্তি মানতে পারছেন না। কারণ সেই ক্ষেত্রে ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট খেলতে গেলেও একইভাবে চোট বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা থেকে যাচ্ছে।