করোনা ভাইরাসের জেরে তিন মাসেরও বেশি সময় ধরে স্তব্ধ হয়ে গিয়েছিল ক্রীড়া বিশ্ব। অবশেষে বিশ্ব জুড়ে ধীরে ধীরে ফিরছে সমস্ত ধরনের খেলা। ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে নামী ফুটবল লিগগুলি। আগামী মাসের আট তারিখ থেকে ইংল্যান্ডে ফিরছে ক্রিকেট। কিন্তু তার আগেই করোনা আবহেই এশিয়া মহাদেশে ফিরল ক্রিকেট। সোমবার থেকে শ্রীলঙ্কার মাটিতে শুরু হয়েছে শ্রীলঙ্কান প্রিমিয়ার লিগ। যার নাম দেওয়া হয়েছে শ্রীলঙ্কা ইউভিএ প্রিমিয়ার লিগ টি-টোয়েন্টি।

আরও পড়ুনঃলা লিগার শীর্ষে জায়গা পাকা করল রিয়াল, বার্সার থেকে ২ পয়েন্টে এগিয়ে গেল জিদানের দল

এশিয়া মহাদেশে আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্ট কবে ফিরবে তা নিয়ে এখনও ধোঁয়াশা কাটেনি। কারণ স্থগিত হচ্ছে একের পর এক সিরিজ। এই পরিস্থিতি শ্রীলঙ্কার ফ্র্যাঞ্চাইজি টুর্নামেন্টই আশার আলো দেখালো উপমহাদেশের ক্রিকেট প্রেমিদের। তবে করোনা পরিস্থিতির কথা বিচার করে ছোট আকারে হচ্ছে এই টি-টোয়েন্টি প্রতিযোগিতা। মোট চারটি দল রয়েছে এই প্রতিযোগিতায়। চারটি দল হল- বাদুল্লা সি ঈগলস, মাহিয়ানগানায়া উইনিলায়নস, ওয়েল্লাভায়া ভাইপার্স, মোবারগালা হরনেটস। এই দলগুলিতে খেলতে দেখা যাবে দ্বীপ রাষ্ট্রের তারকা ক্রিকেটারদেরও। তাদের মধ্যে অন্যতম তিলকরত্নে দিলশান, সানাকা, অজন্তা মেন্ডিস, থিলান তুসারা,পারভেজ মাহরুই সহ অন্যান্যরা।

আরও পড়ুনঃ২০০৭ টি-২০ বিশ্বকাপে সচিন-সৌরভকে খেলতে দেননি দ্রাবিড়,সামনে এল বিস্ফোরক তথ্য

আরও পড়ুনঃঅধিনায়কত্বের শুরুর দিকে বোলারদের বিশ্বাস করতেন না ধোনি,চাঞ্চল্যকর দাবি ইরফান পাঠানের

এই টুর্নামেন্টে একটি ডাবল রাউন্ড-রবিন ফর্ম্যাট অনুসরণ করা হবে। প্রতিটি দল একে অপরের সঙ্গে দুবার করে খেলবে লিগে। পয়েন্টের বিচারে শীর্ষস্থানীয় দলটি সরাসরি ফাইনালে খেলার সুযোগ পাবে। পাশাপাশি দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থানাধিকারী দলটির মধ্যে এলিমিনেটর অর্থাৎ ফাইনালে যোগ্যতা অর্জ নের জন্য একটি ম্যাচ হবে। বিজয়ী দল ফাইনালে অংশ নেবে। ২৯ জুন থেকে শুরু খেলা। ফাইনাল হবে ৫ জুলাই। ক্রিকেটারদের সুরক্ষার কথা মাথায় রেখে সমস্ত স্বাস্থ্যবিধি মেনেই পরিচালনা করা হচ্ছে এই প্রতিযোগিতা। শ্রীলঙ্কার টি-২০ লিগ দিয়ে হলেও উপমহাদেশে ক্রিকেট ফেরাকে স্বাগত জানিয়েছে ক্রিকেট প্রেমিরা।