ইডেনে দেশের প্রথম ডে নাইট টেস্ট হবে নভেম্বর মাসে। মঙ্গলবারই সেই বিষয়ে চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়ে গেছে। সৌরভের পাঠানো প্রস্তাবে রাজি হয়েছে বাংলদেশ ক্রিকেট বোর্ড। তাই মঙ্গলবার থেকেই আরও একটা নতুন ইতিহাস তৈরির কাজে নেমে পরেছেন ইডেন গার্ডেন্সের সঙ্গে যুক্ত মানুষরা। তবে ভয় একটা জায়গাতেই। সেটা ম্যাচের সময়। নভেম্বরের ২২ তারিখ থেকে শুরু দেশের প্রথম ডে নাইট টেস্ট। কিন্তু সেই সময় শিশির যে একটা বড় ফ্যাক্টর হয়ে দেখা দেয় কলকাতা ময়দানে। তবে বাংলা ক্রিকেটের হেড কোয়াটার থেকে আশ্বাস বাণী ভেসে আসছে। শিশির বড় ফ্যাক্টর হবে না বলেই মনে করছেন সিএবি কর্তারা। 

আরও পড়ুন - ঐতিহ্য ও আবেগের ইডেন, এক নজরে ইতিহাসের পাতায় ক্রিকেটের নন্দন কানন

ভারত-বাংলাদেশ টেস্টের জন্য পিচ তৈরির দাইত্বে রয়েছেন ইডেনের কিউরেটর সুজন মুখোপাধ্যায়। এক সংবাদ সংস্থাকে তিনি জানিয়েছেন, খেলা শুরু হবে দুপুর দেড়টায়। খেলা শেষ হয়ে যাবে রাত আটটা থেকে সাড়ে আটটার মধ্যে। তাই শিশির খুব বড় সমস্যা হবে না। তবুও শিশির মোকাবিলা করার জন্য তৈরি রয়েছেন তাঁরা। আনা হচ্ছে বিশেষ স্প্রে। সুজন মুখোপাধ্যায় জানিয়েছেন এবারও ইডেনে স্পোর্টিং উইকেট তৈরি থাকবে। যে দল ব্যাটে বলে ভাল ক্রিকেট খেলতে পারবে তাঁদের সাহায্য করবে উইকেট। 

আরও পড়ুন - কী কথা হয়েছিল শাকিব ও বুকির মধ্যে, সেই তথ্যও প্রকাশ করল আইসিসি

তবে চিন্তা একটা থেকেই যাচ্ছে।  কারণ বিগত কয়েক বছরের দিকে তাকালে দেখা যাচ্ছে, একদিনের ক্রিকেট হোক বা টি-২০ ম্যাচ। ভারতে শীতকালে শিশির একটা বড় ফ্যাক্টর হয়ে দেখা দিচ্ছে। প্রতিবার বল করতে যাওয়ার আগে আম্পায়ারের থেকে রুমাল নিয়ে বল মুছতে দেখা যায় বোলার বা ফিল্ডারদের। তেমন পরিস্থিতি হলে গোলাপী বল কতক্ষণ নিজের রং ধরে রাখতে পারেব তা নিয়েও থাকছে প্রশ্ন। সভাপতির পদে বসে সৌরভ প্রথম বলেই ছক্কা হাঁকিয়েছেন এটা যেমন ঠিক তেমনই দেশের মাটিতে প্রথম দিন রাতের পিঙ্ক বল টেস্ট যাতে কোনও সমস্যা ছাড়াই শেষ হয় সেটার চ্যালেঞ্জের সামনেও পরতে হচ্ছে মহারাজ ও ইডেনকে। সৌরভ আশাবাদী নিজের ঐতিহ্য ধরে রেখেই আরও একটা নতুন ইতিহাস লিখবে ক্রিকেটের নন্দন কানন। 

আরও পড়ুন - এক বছরেই মাঠে ফিরতে পারেন শাকিব, মানতে হবে আইসিসি’র নিয়ম