করোনা ভাইরাসের দাপটে বিধ্বস্ত ক্রিকেট বিশ্ব। বাতিল বা স্থগিত হয়ে গিয়েছে একের পর এক সিরিজ। অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত হয়ে গিয়েছে আইপিএল। এবছর আদৌ আইপিএল হবে কিনা তার উত্তর জানা নেই কারোর। পরিস্থিতি যা তাতে ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, এবছর বাতিল হতে চলেছে আইপিএল। শুধু আইপিএল নয় চরম অনিশ্চয়তার মধ্যে রয়েছে এশিয়া কাপ ও অক্টোবরে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ভবিষ্যৎ। ভারতের অস্ট্রেলিয়া সফর নিয়েও রয়েছে প্রশ্ন চিহ্ন। যদিও ফাঁকা স্টেডিয়ামে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ও ভারত-অস্ট্রেলিয়া সিরিজ হওয়ার একটা সম্ভাবনা রয়েছে। আইপিএল যদিও হয়, তাহলে তা অবশ্যই হবে ফাঁকা স্টেডিয়ামে। করোনা পরবর্তী পরিস্থিতি ভ্যাকসিন আবিষ্কার না হওয়া পর্যন্ত যে কোনও স্পোর্টস দর্শকশূণ্য হতে চলেছে, তা একপ্রকার নিশ্চিত। বর্তমানে ক্লোজড ডোর ছাড়া উপায় নেই তাও জানেন সকলে। দর্শকশূণ্য স্টেডিয়ামে খেলার বাধ্যতামূলক জানলেও, দর্শক ছাড়া মাঠে সেই ম্যাজিকাল মুহূর্ত তৈরি করা খুব কঠিন বলে জানাচ্ছেন ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি।

আরও পড়ুনঃওয়ান ডে ক্রিকেটে সচিনের থেকে ভাল ওপেনার রোহিত,কেন বললেন প্রাক্তন কিউই ক্রিকেটার

সম্প্রতি একটি খেলার চ্যানেলের শো-তে বিরাট কোহলি বলেন,"আমি সত্যিই জানি না সবাই বিষয়টিকে কীভাবে নেবে কারণ আমরা প্রচুর মানুষের সামনে খেলে অভ্যস্ত। যারা প্যাশনেট ফ্যান। আমি জানি এটা খেলা হবে একই প্রবলতা নিয়ে কিন্তু দর্শকদের সঙ্গে যে যোগাযোগটা তৈরি হয় প্লেয়ারদের এবং খেলার টেনশন যেটার মধ্যে দিয়ে সবাই যায় যারা স্টেডিয়ামে থাকে, সেই আবেগটা তৈরি করা কঠিন হবে। । তোমাকে শুধু খেলাটা খেলতে হবে যেভাবে খেলা হয় কিন্তু সেই ম্যাজিক্যাল মুহূর্ত আসা কঠিন। মাঠে খেলার সময় যে বিষয়গুলি ঘটে সবই ঘটবে,কিন্তু আমার সন্দেহ আছে সেই ম্যাজিক কেউ অনুভব করতে পারবে কিনা ভিতরে।"

আরও পড়ুনঃম্যাচ ফিক্সিংয়ে হঠাৎ ভারতের নাম কেন জড়ালেন প্রাক্তন পাকিস্তানি পেসার

আরও পড়ুনঃচূড়ান্ত দিন ঠিক না হলেও জুনেই ফিরছে স্প্যানিশ লা লিগা,জানালেন মুখপাত্র

গত মাসে অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটার নাথান লিয়ঁ বিরাট কোহলি খালি স্টেডিয়ামে খেলতে পারবেন কিনা বলতে গিয়ে বলেছিলেন, ‘‘ও হয়তো এই পরিস্থিতির সঙ্গে মানিয়ে নিতে পারবেন। কিন্তু আমি মিচ স্টার্কের সঙ্গে কথা বলছিলাম একদিন এবং আমরা আলোচনা করলাম যদি আমরা দর্শক ছাড়া খেলি তাহলে বিরাট কোহলিকে যদি দেখি খালি সিটে পৌঁছে গিয়েছে তাহলে সেটা দারুণ হবে।'' লিয়ঁ বলেছিলেন, ‘‘এটা কিছুটা আলাদা হতে চলেছে। কিন্তু বিরাট সুপারস্টার। ও যে কোনও পরিস্থিতির সঙ্গে মানিয়ে নিতে পারে, যে কোনও পরিস্থিতিতে খেলতে পারে।'' ক্রিকেট বিশষজ্ঞদের অনেকেই মনে করছেন, করোনা পরবর্তী সময়ে খালি স্টেডিয়ামে খেলতে হবে সেটা ঠিকই। কিন্তু প্লেয়াররা সেটা ভিতর থেকে কতটা মানিয়ে নিতে পারবে তা নিয়ে একটু হলেও ধন্দ থেকেই যাচ্ছে। একইসঙ্গে খেলার জৌলুস হারিয়ে যাবে কিনা তা নিয়ে থাকছে সংশয়। কিন্তু সবার আগে সুরক্ষা। তাই কিছু করার নেই কারোরই।