একদিনের ক্রিকেটের বিশ্বকাপ জেতা হয়নি। কিন্তু পরের বছরেই আরও একটি বিশ্বকাপ আসতে চলেছে। টি২০-র সেরার শিরোপা জেতার লক্ষ্যে শনিবার থেকেই প্রস্তুতি শুরু করছে ভারত। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডায় এদিনই ওয়েস্টইন্ডিজের বিরুদ্ধে প্রথম টি২০ ম্যাচ দিয়ে ২২ গজে ফিরছেন বিরাট কোহলিরা। আর তার আগে সাংবাদিক সম্মেলনে অধিনায়ক সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, দল পুনর্গঠনই এই সিরিজের লক্ষ্য। কাজেই এই সিরিজ নতুনদের কাছে দলে নিজের জায়গা পাকা করার দারুণ সুযোগ।

সাংবাদিক সন্মেলনে বিরাট বলেছেন, সামনের বছর টি২০ বিশ্বকাপ রয়েছে। টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ শুরু হচ্ছে। সবসময় যেমনটা চাওয়া হয়, তেমন ফল মেলে না। তাই তখন একমাত্র রাস্তা ফের ড্রয়িং বোর্ডে ফিরে গিয়ে সবকিছু নতুন করে শুরু করা। ফের কঠোর পরিশ্রমের রাস্তায় ফিরে গিয়ে আরও একবার বিশ্বকাপ জেতার চেষ্টাই তাঁরা করবেন। বিশ্বকাপের হতাশা ক্রিকেট মাঠে ফেরার মধ্য দিয়েই কেটে যাবে বলে আশা করেন তিনি।  

এতদিন সীমিত ওভারের ক্রিকেটে মহেন্দ্র সিং ধোনিকেই দরকার বলে সওয়াল করে এসেছেন কোহলি। কিন্তু, এইবার তিনিও যে ধোনির নির্ভরতা কাটিয়ে বের হতে চাইছেন সেই বিষয়টা স্পষ্ট হয়ে গিয়েছে অধিনায়কের বক্তব্যে। এখনও অবশ্য তিনি বলেছেন ধোনির অভিজ্ঞতা ভারতীয় দলের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু তাঁরর অনুপস্থিতি পন্থের সামনে বড় সুযোগ বলেই মনে করছেন তিনি। এই সিরিজে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নিজের প্রতিভাকে তুলে ধরার সুযোগ পাবেন পন্থ। দলে নিজের জায়গা পাকা করে নিতে পারবেন। দলও তাঁকে ধারাবাহিক পারফর্মার হিসেবে দেখতে চাইছে বলে জানিয়েছেন বিরাট।

তবে শুধু পন্থই নন, ক্যারিবিয়ান সফরের সীমিত ওভারের ক্রিকেটে বেশ কয়েকজন নতুন মুখকে সুযোগ দেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে ধোনির পাশাপাশি আরও এক ফিনিশার হার্দিক পাণ্ডিয়াও নেই এই সিরিজে। কাজেই নতুনদের প্রত্যেককেই নিজেদের প্রমাণ করার যথেষ্ট সুযোগ দেওয়া হবে। পরের বছরই টি২০ বিশ্বকাপ। কাজেই সামনের কয়েকমাসে ভাল কিছু করে দেখাতে পারা মানেই এই নতুনদের সামনে সেই বিশ্বকাপের দলের দরজা খুলে যেতে পারে।

সম্প্রতি ভারতীয় দলে তিন ধরণের ক্রিকেটেই যাঁরা খেলতে পারেন তাঁদের নেওয়ার উপর জোর দেওয়া উচিত না, এক ফর্ম্য়াটের বিশেষজ্ঞ খেলোয়াড়দের খেলানো উচিত এই নিয়ে বিতর্ক হয়েছে। কোহলি জানিয়েছেন, যাঁরা তিন ধরণের ক্রিকেটেই দাপট দেখাতে পারেন, তাঁদের তিনি খুবই পছন্দ করেন। কিন্তু কেউ কেউ তাঁদের কেরিয়ারের এক বিশেষ বাঁকে কোনও কোনও ফর্ম্যাটে বেশি ভাল খেলেন। দলের কিন্তু অনেকসময়ই এই সব 'বিশেষজ্ঞ' ক্রিকেটারদেরই প্রয়োজন হয়, বলে মন্তব্য করেন বিরাট।