ফের পাকিস্তানে বিস্ফোরণ। না এ কোনও বোমা বিস্ফোরণ বা জঙ্গি হামলা নয়। এই বিস্ফোরণ ঘটিয়েছেন পাকিস্তানের প্রাক্তন অধিনায়ক জাভেদ মিয়াঁদ। নিজের বাক্যবোমা দিয়ে। তাও আবার পাকিস্তানের আরেক প্রাক্তন অধিনায়ক ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের বিরুদ্ধে। রাজনীতি থেকে ক্রিকেট সবকিছুতেই ইমরান খানের বিরুদ্ধে তোপ দেগেছেন জাভেদ মিয়াঁয়দ। ইমরান খানকে কার্যত বেইমান, দেশদ্রোহী বলার পাশাপাশি তাকে রাজনীতির ময়দানে নেমে যোগ্য শিক্ষা দেওয়ার হুঁশিয়ারীও দিয়েছেন জাভেজ মিয়াঁদদ। পাকিস্তানের ১৯৯২ বিশ্বকাপ জয়ী দলের সদস্যের তার প্রাক্তন অধিনায়কের বিরুদ্ধে এহেন নজিরবিহীন আক্রমণে সরগরম পাকিস্তান।

আরও পড়ুনঃ'প্রথাগত কোচিং পাইনি, যা শিখেছি নিজেই', অদ্ভুত বোলিং অ্যাকশনের রহস্যও জানালেন বুমরা

সোশ্যাল মিডিয়ার যুগে ননিজের একটি ইউটিউব চ্যানেল করেছেন জাভেদ মিয়াঁদদ। সেখানেই পাকিস্তানের ক্রিকেটের বর্তমান পরিস্থিতি দেশের রাজনীতির অবস্থা প্রসঙ্গে বক্তব্য রাখতে গিয়ে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের বিরুদ্ধে তোপ দাগেন মিয়াঁদদ। বিদেশ থেকে ওয়াসিম খানকে এনে পিসিবি-র দায়িত্বে বসানোর বিরুদ্ধে মিয়াঁদদ বলেন,'ইমরান খান মনে করে পিসিবি চালানোর লোক পাকিস্তানে নেই। তাই বিদেশিদের নিয়োগ করেছে। এবার বিদেশিরা পিসিবি থেকে টাকা তছরুপ করে পালিয়ে গেলে কে তাদের ধরে আনবে! পিসিবিতে একের পর এক ভুল লোক নিয়োগ করেছে ইমরান খান। তারা লুটেপুটে খাচ্ছে।' মিয়াঁদাদ আরও জানিয়েছেন,'পাকিস্তানের ডিপার্টমেন্টাল ক্রিকেট বন্ধ করে দিয়েছেন ইমরান খান। ফলে ঘরোয়া ক্রিকেটে চুটিয়ে খেলা অনেক ক্রিকেটার এখন বেকার হয়ে গিয়েছে। ইমরান খান নিজেও ডিপার্টমেন্টাল ক্রিকেট খেলেছে। এখানে খেলে অনেক ক্রিকেটার চাকরি পেত। কিন্তু ইমরান খান এবার সেটা বন্ধ করে দিয়েছে। যা পারছে ও করছে। নিজে একজন ক্রিকেটার হয়ে ও ক্রিকেটারদের ক্ষতি করছে।'

আরও পড়ুনঃঝগড়া থেকে প্রেম, দাম্পত্য জীবনের নানা গোপন তথ্য ক্যুইজ শো-তে জানালেন বিরুষ্কা

আরও পড়ুনঃআইসিসির চেয়ারম্যান নির্বাচনের পদ্ধতি নিয়ে বিবাদ বিসিসিআই ও পিসিবির

শুধু ক্রিকেট নয়, রাজনীতি নিয়েও ইমরানের বিরুদ্ধে তোপ দেগেছেন জাভেদ মিয়াঁদদ। বলেছেন,'পাকিস্তানের জনগণের সঙ্গে বেইমানি করেছে ইমরান খান। ও নিজেকে আল্লাহ্ ভাবতে শুরু করেছে। ও মনে করছে যা খুশি তাই করবে। কেউ আটকানোর নেই। দেশের প্রধানমন্ত্রী ওকে আমি বানিয়েছি। আমার সহায়তা না থাকলে ও এত বড় পদে কোনওদিন বসতে পারত নাকি! আর ও দেশের জন্য কী করছে! দেশকে ধোকা দিচ্ছে ও। ইমরান খানকে এবার আমি শিক্ষা দেব। দেশের সঙ্গে খারাপ কিছু করা কাউকে আমি ছাড়ব না।' রাজনীতর ময়দানে নেমে একদা সতীর্থকে যোগ্য শিক্ষা দেওয়ার কথাও বলেছেন মিঁয়াদদ। তিনি জানিয়েছেন,'রাজনীতির ময়দানে নামলে চোখে আঙুল দিয়ে ভুল ধরিয়ে দেব। ঠিককে ঠিক বলব, ভুলকে ভুল। কোনও মুখোশ পরে থাকার পাত্র নই। ইমরান মনে রেখো, আমি তোমার অধিনায়ক ছিলাম। রাজনীতির ময়দানেও তোমাকে টক্কর দিতে আমার অসুবিধা হবে না।' বেশ কিছু দিন ধরেই ইমরানের একাধিক বিষয় নিয়ে তারউপর ক্ষুব্ধ ছিলেন জাভেদ মিয়াঁদদ। ঘনিষ্ঠ মহলে তা নিয়ে মুখও খুলেছিলেন তিনি। কিন্তু প্রকাশ্যে এমনভাবে ইমরানকে চাচাছোলা ভাষায় আক্রমণ দুই  ক্রিকেটারের সম্পর্কে বড়সড় ভাঙন বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।