তিন ম্যাচের সিরিজের প্রথম ম্যাচ হেরে এমনিতেই চাপে রয়েছে গোটা ইংল্যান্ড। সাউদ্যাম্পটনে ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে রুদ্ধশ্বাস ম্যাচে ৪ উইকেটে হারতে হয়েছিল ব্রিটিশ লায়ন্সদের। দ্বিতীয় ম্যাচে ঘুরে দাঁড়ানোর জন্য বদ্ধপরিকর ছিল ইংল্যান্ড দল। কিন্তু বৃহস্পতিবার ম্যাচ শুরু কিছু সময় আগেই বড় ধাক্কা খেল ইংল্যান্ড দল। দল থেকে বাদ দেওয়া হল দলের পেস বোলিং অ্যাটাকের অন্যতম শক্তি জোফ্রা আর্চারকে। ইংল্যান্ড বোর্ডের ‘বায়ো সিকিওর প্রোটোকল’ বিধি ভাঙায় আর্চারকে ১৩ জনের দল থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে জোফ্রা আর্চারকে না পাওয়ায় ইংল্যান্ডের উপর চাপ বাড়ল বলেই মনে করছেন ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা।

আরও পড়ুনঃধোনির প্রশংশায় গ্যারি কার্স্টেন, মন ছুঁয়ে যাওয়া এক ঘটনাও জানালেন প্রাক্তন ভারতীয় কোচ

করোনা সংক্রান্ত নিয়ম লঙ্ঘন করার অভিযোগে ইংল্যান্ডের এই ক্রিকেটার দল থেকে বাদ পড়লেন। জৈব সুরক্ষা বলয় বা বায়ো সিকিউরিটি বাবেলের নিয়ম ভেঙে বাইরে বেরিয়েছিলেন জোফ্রা আর্চার। করোনা সংক্রান্ত নিয়ম লঙ্ঘন করায় আগামী পাঁচ দিন আইসোলেশন থাকতে হবে এই ফাস্ট বোলারকে। এই পাঁচ দিনের মধ্যে দু' বার করোনা পরীক্ষা করা হবে আর্চারের। করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ হলে তবেই তিনি তৃতীয় টেস্ট খেলার জন্য অনুমতি পেতে পারেন। জোফ্রা আর্চারের নিয়ম লঙ্ঘন শুধু নিজের কাছে নয়, পুরো দলের কাছে ছিল ঝুঁকিপূর্ণ।  তাই আর্চারের এই ভুল কোনওভাবই ছোট করে দেখেনি ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড। ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড নিয়ম মেনে শাস্তিমুলক ব্যবস্থা হিসেবে আর্চারকে দল থেকে বাদ দিয়েছে।

আরও পড়ুনঃপ্রকাশ্যে বিসিসিআইয়ের আইপিএল ব্লু প্রিন্ট, সম্ভবত আরবেই বসছে কোটিপতি লিগের আসর

আরও পড়ুনঃভারত-অস্ট্রেলিয়া সিরিজের মাঝেই শুরু হচ্ছে বিগ ব্যাশ লিগ

যদিও নিজের ভুল বুঝতে পেরেছেন ইংল্যান্ডের তারকা পেসার। তার জন্য পুরো দল বিপদে পড়তে পারে তাও বুঝতে পেরে নিঃশর্ত ক্ষমা চেয়েছেন আর্চার। তিনি জানিয়েছেন,'আমি যা করেছি তার জন্য দুঃখপ্রকাশ করছি। শুধু নিজের জন্য নয় পুরো দল এবং টিম ম্যানেজমেন্টকে ঝুঁকির সামনে ফেলে দিয়েছি। আমার ভুলের জন্য যে শাস্তি দেওয়া হয়েছে তা আমি মেনে নিচ্ছি। বায়ো সিকিউরিটি বাবলে থাকা প্রত্যেকের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করছি। সিরিজে এই অবস্থায় দল থেকে বাদ পড়া খুবই কষ্টকর। আমার মনে হচ্ছে দুটো দলকে বিপদে ফেলেছি। আমি প্রত্যেকের কাছে আবার ক্ষমাপ্রার্থী।' আর্চারকে শাস্তি দেওয়ার পাশাপাশি দলের অন্যান্য ক্রিকেটারদেরও সতর্ক করে দিয়েছে ব্রিটিশ বোর্ড।