ভারতীয় ক্রিকেট দলের প্রধান কোচ হিসেবে রবি শাস্ত্রীই থাকবেন, নাকি দায়িত্ব পাবেন অন্য কেউ তা পরিষ্কার হয়ে যাবে শুক্রবারই। এদিন মুম্বইয়ে বিসিসিআই-এর সদর দফতরে কোচের আবেদনকারীদের মধ্য থেকে বাছাই করা ছয়জনের সাক্ষাতকার নেবেন কপিল দেবের নেতৃত্বাধীন তিন সদস্যের ক্রিকেট উপদেষ্টা কমিটি। বোর্ডের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে এদিন সন্ধ্যা ৭টার সময়ই সাংবাদিক বৈঠক করে ভারতের পরের কোচের নাম ঘোষণা করা হবে। শুধু প্রধান কোচ নয়, একই সঙ্গে ব্যাটিং, বোলিং, ফিল্ডিং কোচ এবং প্রশাসনিক ম্যানেজারের পদেও নতুন বাছাই হবে। জেনে নেওয়া যাক ভারতের কোচ বাছাই নিয়ে সবকিছু -

কারা বাছবেন কোচ?

ভারতের প্রধান কোচ বাছাইয়ের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে কপিল দেবের নেতৃত্বাধীন ক্রিকেট উপদেষ্টা কমিটিকে। এই কমিটিতে কপিল ছাড়া আছেন অংশুমান গায়কোয়াড় ও শান্তা রঙ্গস্বামী। আর বাকি সাপোর্ট স্টাফদের বাছাই করবেন এমএসকে প্রসাদের নেতৃত্বাধীন জাতীয় নির্বাচন কমিটি।

কারা কারা আছেন ভারতের প্রধান কোচ হওয়ার দৌড়ে?

বিসিসিআই-এর বিজ্ঞাপনে সাড়া দিয়ে গ্যারি কার্স্ট্রেন থেকে মাহেলা জয়বর্ধনের মতো ক্রিকেট দুনিয়ার অনেক বড় নাম হট সিটের জন্য আবেদন করেছিলেন। তাদের মধ্য থেকে বোর্ড ছয়জনের নাম সাক্ষাতকার নেওয়ার জন্য চুড়ান্ত করেছে। এই ছয়জন হলেন বর্তমান কোচ রবি শাস্ত্রী, প্রাক্তন অস্ট্রেলিয় অলরাউন্ডার এবং শ্রীলঙ্কার কোচ টম মুডি, প্রাক্তন নিউজিল্যান্ড ও কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব কোচ মাইক হেসেন, ভারতের ২০০৭ সালের টি২০ বিশ্বকাপ বিজয়ী দলের ম্যানেজার লালচাঁদ রাজপুত, মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের প্রাক্তন প্রধান কোচ রবিন সিং এবং ওয়েস্টইন্ডিজ ও  আফগানিস্তানের জাতীয় দলের প্রাক্তন কোচ ফিল সিমন্স। এঁদের মধ্যে লালচাঁদ রাজপুত, রবিন সিং, মাইক হেসন সরাসরি ক্রিকেট হাউসে উপস্থিত হয়ে সাক্ষাতকার দেবেন, আর বাকি তিনজন দেবেন ভিডিও কলের মাধ্যমে।

অন্যান্য সাপোর্ট স্টাফের দৌড়ে কারা?

ব্যাটিং কোচ: বিক্রম রাঠোর, সঞ্জয় বাঙ্গার (বর্তমান কোচ), জোনাথন ট্রট, থিলান সমরভিরা, লালচাঁদ রাজপুত, হৃষীকেশ কানিতকার, অমল মুজুমদার, অরুণ কুমার, মার্ক রামপ্রকাশ, শিব সুন্দর দাস, জন লুইস, মিঠুন মানহাস, প্রবীন আমরে।

বোলিং কোচ: বেঙ্কটেশ প্রসাদ, ভরত অরুণ (বর্তমান কোচ), ক্লিন্ট ম্যাকে, ডোডা গণেশ, ড্যারেন গফ, সুব্রত বন্দ্যোপাধ্যায়, পরস মাম্ব্রে, সুনীল যোশী, অমিত ভান্ডারী।

ফিল্ডিং কোচ: অভয় শর্মা, আর শ্রীধর (বর্তমান কোচ) এবং জন্টি রোডস।

কোচের দৌড়ে কারা এগিয়ে?

বিরাট কোহলি সরাসরি জানিয়ে দিয়েছেন রবি শাস্ত্রীকেই ফের কোচ হিসেবে দেখতে চান। তাঁর মন্তব্য কোচ বাছাইয়ে প্রভাব ফেলবে না বলে কপিলরা জানালেও, নিঃসন্দেহে পর পর দুটি বিশ্বকাপে সেমিফাইনালে ব্যর্থ হওয়ার পরও রবি শাস্ত্রীই প্রদান কোচ হওয়ার দৌড়ে এগিয়ে। এছাড়া পেস বোলিং নিয়ে ভাল কাজ করার জন্য বর্তমান বোলিং কোচ ভরত অরুণও সম্ভবত নিজের জায়গা ধরে রাখবেন। একই কথা বলা যায় ফিল্ডিং কোচ আর শ্রীধরকে নিয়েও। তবে সমস্য়ায় আছেন ব্যাটিং কোচ সঞ্জয় বাঙ্গার। মিডল অর্ডারের ব্যর্থতার দায় তাঁর ঘাড়ে রয়েছে।
   
২০১৭ সালের জুলাই মাসে ভারতের প্রধান কোচ হিসেবে রবি শাস্ত্রীকে বেছে নিয়েছিল সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের নেতৃত্বাধীন ক্রিকেট উপদেষ্টা কমিটি। বিশ্বকাপ ২০১৯-এর পরই তাঁর মেয়াদ ফুরায়। কিন্তু তারপর বোর্ডে ওয়েস্টইন্ডিজ সফর পর্যন্ত তাঁর মেয়াদ বৃদ্ধি করেছিল।