একে করোনা তারউপর সাইক্লোন আমফানের তাণ্ডব। বদলে দিয়েছে শহর কলকাতা তথা রাজ্যের চেবা ছবিটাই। সাইক্লোন আমফানের পর সিটি অফ জয় কার্যত ধ্বংসপুরীতে পরিণত হয়েছে। এছাড়াও রাজ্যের একাধিক জেলা বিশেষ করে দুই ২৪ পরগনা, পূর্ব মেদিনীপুর, হাওড়া, হুগলিকে লন্ডভন্ড করে দিয়েছে আমফান। রাজ্যের এই বিপদের দিনে আরও একবার সাহায্যের হাত বাড়িয়ে এগিয়ে এল বাংলার আইপিএল ফ্র্যাঞ্চাইজি কলকাতা নাইট রাইডার্স। শুধু আমফান নয়, এর আগেও রাজ্যে করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলাতেও রাজ্য সরকারের গঠিত তহবিলে অনুদান দেওয়ার পাশাপাশি পিপিই কিট প্রদান সহ একাধিক উদ্যোগ নিয়েছিল কেকেআর।

আরও পড়ুনঃধোনির অবসরের জল্পনা, তীব্র প্রতিক্রিয়া সাক্ষীর

এবার আমফান পরিবর্তী পরিস্থিতি মোকাবিলায় মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে আর্থিক সাহায্য করল শাহরুখ খানের কলকাতা নাইট রাইডার্স। এছাড়াও দলের তরফ থেকে নেওয়া হয়েছে একাধিক কর্মসূচি। বিধ্বংসী ঝড়ের পরের দিন কেকেআর-এর কর্ণধার শাহরুখ খান টুইট করেছিলেন, ‘‘এই পরীক্ষার মধ্যে মেজাজ হারালে চলবে না। একসঙ্গে লড়াই করতে হবে। মনে রাখবেন, একসঙ্গেই এই সঙ্কটের মধ্যে পড়েছি। বেরিয়েও আসব একসঙ্গে।’’ নাইট অধিনায়ক দীনেশ কার্তিক লেখেন, ‘‘কলকাতার মানুষের পাশে আমরা আছি। এই ক্ষতি সকলের।’’ আমফানের তাণ্ডবে রাজ্যের একাধিক জেলা ধ্বংসস্তুপে পরিণত হয়েছে। ঘরছাড়া বহু মানুষ। জুটছে আহার টুকুও। এই সকল মানুষের পাশে দাঁড়াতে রাজ্যের একাধিক শহরে সহায়তা ভবন তৈরি করছে কেকেআর। এখান থেকেই ক্ষতিগ্রস্তদের প্রয়োজনীয় সামগ্রী দেওয়ার ব্যবস্থা থাকবে। যারমধ্যে প্রাধান্য পাচ্ছে খাদ্যসামগ্রী থেকে ওষুধ, স্যানিটাইজ়ার সহ একাধিক সামগ্রি। 

 

 

আরও পড়ুনঃগাব্বায় ভারত-অস্ট্রেলিয়া প্রথম টেস্ট,অ্যাডিলেডে হবে ঐতিহাসিক পিঙ্ক বল টেস্ট

আরও পড়ুনঃঅনেকটাই এক দুজনের ব্যাট ধরার স্টাইল,কে এই ক্ষুদে ক্রিকেটার যার ছবি শেয়ার করলেন সচিন

১)মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে অনুদানঃ
শুধু আমফান নয়, এর আগেও রাজ্যে করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলাতেও রাজ্য সরকারের গঠিত তহবিলে অনুদান দেওয়ার পাশাপাশি পিপিই কিট প্রদান সহ একাধিক উদ্যোগ নিয়েছিল কেকেআর। এবার আমফান মোকাবিলায় মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে অনুদান দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কলকাতা নাইট রাইডার্স দল। তারা তাদের সাধ্যমত রাজ্য সরকারকে সাহায্যের আশ্বাস দিয়েছে।

২)কেকেআর সহায়তা ভবনঃ
আমফানের তাণ্ডবে রাজ্যের একাধিক জেলা ধ্বংসস্তুপে পরিণত হয়েছে। ঘরছাড়া বহু মানুষ। জুটছে না আহার টুকুও। এই সকল মানুষের পাশে দাঁড়াতে রাজ্যের একাধিক শহরে সহায়তা ভবন তৈরি করছে কেকেআর। এখান থেকেই ক্ষতিগ্রস্তদের প্রয়োজনীয় সামগ্রী দেওয়ার ব্যবস্থা থাকবে। যারমধ্যে প্রাধান্য পাচ্ছে খাদ্যসামগ্রী থেকে ওষুধ, স্যানিটাইজার সহ একাধিক সামগ্রি। 

৩)বৃক্ষরোপণঃ
এছাড়াও আরও একটি মহৎ উদ্যোগ নিয়েছে কেকেআর। আমফানের তাণ্ডবে কলকাতা শহর জুড়ে উপড়ে গিয়েছে বহু গাছ। নষ্ট হয়ে গিয়েছে সাজানো শহর। তাই শহরের বিভিন্ন প্রান্তে ৫ হাজার বৃক্ষরোপন করার উদ্যোগ নিয়েছে কেকেআর। শহরের রূপ ফেরাতেই এই উদ্যোগ কেকেআর কর্তৃপক্ষের। ঝড়ের তাণ্ডবে যে হাজার হাজার গাছ উপড়ে পড়েছে, নষ্ট হয়েছে, তার শূন্যস্থান পূরণেই এই প্রয়াস। দলের সিইও ভেঙ্কি মাইসোর বলেন, “কলকাতা তথা পশ্চিমবঙ্গ আমাদের কাছে বিভিন্ন কারণে খুবই স্পেশ্যাল। রাজ্যবাসী সবসময় কেকেআরের প্রতি ভালবাসা আর সমর্থন দেখিয়েছে। ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য এটা আমাদের তরফে একটি ছোট্ট প্রয়াস।” দলের সহ-কর্ণধার জুহি চাওলার নেতৃত্বে অনেক বছর ধরেই কলকাতায় বৃক্ষরোপন করে আসছেন ফ্র্যাঞ্চাইজি কর্মকর্তারা। আমফান বিধ্বস্ত কলকাতায় নতুন করে সেই উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে। করোনার পর আমফানের ধ্বংসলীলা মোকাবিলায় কেকেআরের সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়াকে কুর্ণিশ জানিয়েছে শহর তথা রাজ্যবাসী থেকে বিশ্ব জুড়ে কেকেআর ফ্যানরা।