আইপিএল শুরুর বাকি হাতে গোনা কয়েকটা দিন। আরব আমিরশাহিতে কোয়ারেন্টাইন পর্ব কাটিয়ে ধীরে ধীরে অনুশীলনে ফিরছে সব আইপিএল দলগুলি। প্রতিটি দল নিজেদের মধ্যে ভার্চুয়াল বৈঠকে স্ট্রাটেজি ঠিক করাও শুরু করে দিয়েছে। কিন্তু আইপিএল শুরুর আগেই জোর ধাক্কা খেল কলকাতা নাইট রাইডার্স। চোটের কারণে আসন্ন আইপিএল থেকে ছিটকে গেলে কেকেআরের তারকা পেস বোলার হ্যারি গার্নি। সেই খবর প্রকাশ্যে আসার পরই দুশ্চিন্তা বেড়েছে নাইট রাইডার্স শিবিরে।

আরও পড়ুনঃঘোষিত আইপিএল ২০২০-র সূচি, জেনে নিন কেকেআরের ম্যাচের তারিখ ও সময়

ইংল্যান্ডের তারকা পেসার হ্যারি গার্নি নিজেই জানিয়েছেন, তার কাঁধে গুরুতর চোট রয়েছে। যার জন্য অস্ত্রোপচার করতে হবে তাকে। আগামি মাসেই অস্ত্রোপচার করার কথা। সেই কারনেই  আইপিএল খেলতে আরব আমিরশাহি তিনি যাবেন না। নটিংহ্যামের হয়ে এবছর টি-২০ ব্লাস্টে মাঠে নামবেন না বলে জানিয়ে দিয়েছেন হ্যারি গার্নি। গত মরসুমেও নাইটদের হয়ে ৮ ম্যাচে ৭ উইকেট নিয়েছিলেন গার্নি। ব্রিটিশ পেসার ছিটকে যাওয়ায় নাইট শিবিরে রইল কেবল দুই বিদেশি পেসার। তাদের নিয়েই গোটা নরসুম চালাতে হতে পারে কেকেআরের।

আরও পড়ুনঃমরুদেশে মহারণ, জেনে নিন আইপিএলের সেনাপতিদের শক্তি ও দুর্বলতা

আরও পড়ুনঃডাগ আউটে বসেই নিয়ন্ত্রণ করেন দলের ভাগ্য, চিনে নিন আইপিএলের 'দ্রোণাচার্যদের'

প্রথমে কলকাতা নাইট রাইডার্স ২৩ জনের দল গড়েছিল। প্রবীণ তাম্বে ও হ্যারি গার্নি ছিটকে যাওয়ার তা কমে দাঁড়াল ২১। বিদেশি প্লেয়ারদের মধ্যে পেস বোলার রইলেন কেবল প্যাট কামিন্স ও লকি ফার্গুসন।এছাড়া অবরাউন্ডার আন্দ্রে রাসেলও হাত ঘোড়াবেন। কিন্তু স্কোয়াড ক্রমশ কমে আসায় চিন্তা বাড়ছে নাইট শিবিরে। গার্নির পরিবর্তও খোঁজা হতে পারে বলে খবর নাইট শিবিরে। কিন্তু করোনা আবহে নতু প্লেয়ার নেওয়া একটা সমস্যা হতে পারে ফলে আইপিএল শুরু হওয়ার আগে হ্যারি গার্নি ছিটকে যাওয়ায় কিছুটা কিং খানের দল।