বিসিসিআইয়ের বিরুদ্ধে উঠলো চাঞ্চল্যকর অভিযোগ। এই মুহুর্তে বিশ্ব ক্রিকেটে সবথেকে সমৃদ্ধশালী ও প্রভাবশালী বোর্ড বিসিসিআই। তাদের বিরুদ্ধে এবার উঠলো চুক্তিবদ্ধ ২৭ জন ক্রিকেটারের বেতন বকেয়া রাখার। সেন্ট্রাল কনট্র্যাক্ট-এর আওতায় থাকা ক্রিকেটারদের বছরে চারটি দফায় বেতন দিয়ে থাকে বিসিসিআই। চুক্তির আওতায় থাকা ক্রিকেটাররা শেষবার বেতন পেয়েছেন দশ মাস আগে। এরপর অক্টোবর থেকে বেতন পায়নি সেই ক্রিকেটাররা। তার সাথে সাথে ডিসেম্বর মাস থেকে খেলা ২টি টেস্ট, ৯ টি একদিনের ম্যাচ ও ৮ টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচগুলির ফি ও পাননি তারা।  তার পর অবশ্য চলতি বছরে করোনার আবহে ম্যাচ হয়নি। একের পর এক সিরিজ বাতিল হয়েছে। বিসিসিআইয়ের কর্তারাও আপাতত বাড়ি বসেই কাজ করেছেন। 

আরও পড়ুনঃসৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের ঘোষণা,এবছর আমিরশাহিতেই হবে মেয়েদের আইপিএল

আরও পড়ুনঃরোহিত শর্মাকে হুমকি দিয়েছিলেন যুবরাজ সিং, বলেছিলেন 'আমার বোনের থেকে দূরে থাকো'

২০১৯ ডিসেম্বরের পর থেকে ভারতীয় ক্রিকেট দল মোট ১৯ টি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছে।  ২৭ জন ক্রিকেটারের প্রায় ৯৯ কোটি টাকা বকেয়া রয়েছে। ক্রিকেটারদের গ্রেড অনুযায়ী এই টাকা বাকি রয়েছে। "এ প্লাস" গ্রেড-এ থাকা বিরাট কোহলি, রোহিত শর্মা, জসপ্রিত বুমরা বছরে সাত কোটি টাকা বেতন পাওয়ার কথা। এ, বি ও সি গ্রেড-এর ক্রিকেটারদের যথাক্রমে পাঁচ, তিন ও এক কোটি টাকা করে পাওয়ার কথা। টেস্ট, ওয়ান ডে ও টি-২০ ক্রিকেটের হিসাবে ম্যাচ প্রতি যথাক্রমে ১৫, ৬ ও তিন লাখ টাকা করে পারিশ্রমিক পাওয়ার কথা ক্রিকেটারদের। 

আরও পড়ুনঃচেলসিকে হারিয়ে এফ.এ কাপ ফাইনালে জয় আর্সেনালের