করোনা ভাইরাস মহামারীর জেরে প্রায় অনিশ্চিত ২০২০ সালের আইপিএল। ২৯ মার্চ থেকে শুরু হওয়ার কথা ছিল চলতি মরসুমের আইপিএল। কিন্তু কোভিড ১৯-এর জেরে তা ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নেয় বিসিসিআই ও আইপিএলের গভর্নিং কাউন্সিল। কিন্তু দিন দিন যেভাবে বাড়ছে করোনা ভাইরাসসে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা বাড়ছে তাতে ১৫ এপ্রিল থেকে যে আইপিএল শুরু করা অসম্ভব তা একপ্রকার নিশ্চিত। আইপিএল চেয়ারম্যান রাজীব শুক্লও জানিয়েছেন এই পরিস্থিতিতে আইপিএল করা অসম্ভব। এক সাক্ষাৎকারে বিসিসিআই  প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় বলেছেন, বর্তমানে ক্রিকেট নয়, মানুষের প্রাণ বাঁচানোটাই বেশি জরুরি। এত কিছুর পরেও আইপিএল নিয়ে আশা ছাড়ছেন অজি তারকা প্যাট কামিন্স। ফাঁকা সস্টেডিয়ামে গোটা টুর্নামেন্ট হলেও আপত্তি নেই তার।

আরও পড়ুনঃআগামী বছরও অলিম্পিকের ভবিষ্যৎ নিয়ে প্রশ্ন, আশঙ্কা প্রকাশ করলেন খোদ আয়োজক কমিটির সিইও

চলতি মরসুমে ১৫.৫ কোটি টাকা রেকর্ড অঙ্কের চুক্তিতে চলতি বছর কলকাতা নাইট রাইডার্সে অন্তর্ভুক্তি ঘটেছে অস্ট্রেলিয়ার তারকা ফাসস্ট বোলারের। বিদেশি ক্রিকেটার হিসেবে আইপিএলের ইতিহাসে সবচেয়ে দামী তিনিই। তাই ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ খেলার ব্যাপারে তাঁর আগ্রহও বাকিদের তুলনায় কয়েকগুণ বেশি বলা চলে। তাই আশাবাদী প্যাট বলছেন, ফাঁকা স্টেডিয়ামে হলেও অসুবিধে নেই। তবে মানুষ যেন ঘরে বসে টেলিভিশনে অন্ততপক্ষে উপভোগ করতে পারে। প্যাটের কথায়, ‘সুরক্ষা সবার আগে। কিন্তু তারপরেই আমি চাইব সবকিছু শীঘ্রই যেন স্বাভাবিক হয়ে যায়।’ এরপর তাঁর সংযোজন, ‘দুর্ভাগ্যবশত আইপিএল যদি ফাঁকা স্টেডিয়ামে খেলতে হয় তবু ঠিক আছে। তবে আশা করব অনুরাগীরা যাতে বাড়িতে বসে ম্যাচ উপভোগ করতে পারে।’

আরও পড়ুনঃকরোনা যুদ্ধে ফের মানবিক উদ্যোগ সচিন তেন্ডুলকরের,৫ হাজার মানুষের খাওয়ার দায়িত্ব নিলেন মাস্টার ব্লাস্ট

আরও পড়ুনঃভিত্তিহীন খবরের জের,নিজের ক্ষোভ উগরে দিলেন মেসি
 
সাম্প্রতিক সময়ে দারুণ ছন্দেও রয়েছেন। পুরষ্কার হিসেবে আইসিসি’র বর্ষসেরা টেস্ট ক্রিকেটার এবং উইজডেনের বিচারে বছরের সেরা পাঁচ ক্রিকেটারের তালিকায় নাম রয়েছেন তাঁর। এহেন কামিন্স আইপিএল হবে একপ্রকার ধরে নিয়েই সারছেন চূড়ান্ত প্রস্তুতি। কিন্তু করোনা পরিস্থিতি যেভাবে ক্রমশ ভয়ঙ্কর হচ্ছে তাতে আইপিএলের ভবিষ্যৎ নিয়ে প্রশ্ন চিহ্ন থেকেই যাচ্ছে।