ভারত সীমিত ওভারের ক্রিকেটে মাঠে নমলে এখন একটা প্রশ্ন কমন, কবে ফর্মে ফিরবেন ঋষভ পন্থ। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে টি-২০ সিরিজে ফর্মা ফেরার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন তরুণ এই ক্রিকেটার। সেটা দেখে দলের সবাই ঝষভের হয়ে গলা ফাটিয়েছিলেন। শনিবারই দলের ব্যাটিং কোচও বলেছিলেন ব্যাট রান এলেই বদলে যাবে ঋষভ। রবিবারের চেন্নাই দেখল ঋষভের ফর্মে ফেরা। তিনি যখন মাঠে নেমেছিলেন তখন ভারতীয় দলের অবস্থা খুব একটা ভাল নয়। প্যাভেলিয়ানে ফিরে গেছেন, রোহিত, রাহুল, বিরাটরা। ক্রিজে ছিলেন আরেক তরুণ শ্রেয়, আইয়ার। দুই তরুণের ব্যাটে ভর করে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে বড় রানের ইনিংসের ভীত গড়ল ভারত। ১১৪ রানের পার্টনারশিপ দুজনের। ঋষভ করলেন ৭১ রান। শ্রেয়সের সংগ্রহ ৭০। 

 

 

আরও পড়ুন - সোশ্যাল মিডিয়ায় ভিডিও পোস্ট, এক হোটেল কর্মীর খোঁজে সচিন তেন্ডুলকর

এদিকে ভারতীয় ইনিংসের শেষ দিকে এসে আবার আম্পায়ারিং বিতর্ক। ৪৮ তম ওভারের চার নম্বর বলে রান নিয়েছিলেন জাদেজা। ফিল্ডারের হাত থেকে বল সোজা উইকেটে লাগে। ওয়েস্ট ইন্ডিজ তেমন ভাবে আবেদন করেনি। আর মাঠের আম্পায়রাও গুরুত্ব দেননি। তিনি নট আউট দিয়েছিলেন। কিন্তু পঞ্চম বল শুরু হওয়ার আগেই মাঠের জায়েন্ট স্ক্রীনে ভেসে ওঠে ছবি। বল যখন উইকেটে লেগেছিল তখন জাদেজা ক্রিজের বাইরে। সেই ছবি দেখে আবেদন করতে শুরু করেন পোলার্ডরা। তখন মাঠের আম্পায়ার থার্ড আম্পায়ারের দিকে যান। থার্ড আম্পায়ারও আউট দেন। সেটে দেখে ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন কোহলি। কারণ অভিযোগ, ক্যারিবিয়ান ড্রেসিং রুম থেকে তথ্য আসার পরই আম্পায়ারের কাছে গিয়ে আবেদন করেন পোলার্ডরা। 

আরও পড়ুন - টি-২০ বিশ্বকাপে দলে চান তারকা ক্রিকেটারকে, কোচ বাউচার নিজেই নিচ্ছেন উদ্যোগ

শ্রেয়স আইয়ার ও  ঋষভ পন্থের পাশাপাশি ৩৫ বলে ৪০ রানের ইনিংস খেলেন কেদার যাদব। কেরিয়ারের প্রথম একদিনের ম্যাচ খেলতে নেমেছিলেন শিবম দুবে। আট নম্বরে ব্যাটিং করতে নেমে ৯ রান করেন তিনি। ৫০ ওভারে আট উইকেট হারিয়ে ২৮৭ রান স্কোর বোর্ডে তোলে ভারত। চেন্নাইতে প্রথম একদিনের ম্যাচ জয়ের জন্য ২৮৮ রান করতে হবে পোলার্ডের দলকে। কাজটা চিপকের মাঠে খুব একটা সহজ নয় বলেই মনে করছেন ক্রিকেট পন্ডিতরা। 

আরও পড়ুন - পাকিস্তান যেতে বাধ্য করা হবে না ক্রিকেটারদের, বলছেন বাংলাদেশ বোর্ডের প্রধান