সুপার ওভারের শেষ দু' বলে দুই ছক্কা হাকিয়ে হ্যামিল্টনের মাঠে ভারতকে দুরন্ত জয় এনে দিয়েছেন রোহিত শর্মা। আর তা করার সঙ্গে সঙ্গেই শেষ পর্যন্ত সুপার ওভারে শূন্যর গেরো কাটিয়ে উঠলেন ভারতীয় ওপেনার। শুনতে অবাক লাগলেও এই প্রথমবার সুপার ওভারে ব্যাটে রান পেলেন রোহিত শর্মা। কারণ এর আগে  সুপার ওভারে কখনওই ব্যাটে কোনও রানই পাননি ভারতীয় ওপেনার। তাঁর অবিশ্বাস্য ব্যাটিং এবং শেষ ওভারে মহম্মদ শামির দুরন্ত বোলিংয়ে ভর করেই নিউজিল্যান্ড- এর বিরুদ্ধে ৩-০ ব্যবধানে টি টোয়েন্টি সিরিজে এগিয়ে গেলেন বিরাট কোহলিরা। 

এ দিন টসে জিতে ভারতকে ব্যাট করতে পাঠিয়েছিলেন নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন। প্রথম দুই ম্যাচে রান না পেলেও বুধবার শুরু থেকেই চেনা ছন্দে ব্যাট করতে শুরু করেন রোহিত। মাত্র ৪০ বলে ৬৫ রানের ইনিংস খেলেন তিনি। মূলত তাঁর ব্যাটে ভর করেই ২০ ওভারে ১৭৯ তুলেছিল ভারত। 

আরও পড়ুন- খেলা ঘোরালেন শামি, সুপার ওভারে রুদ্ধশ্বাস জয় এল রোহিতের হাত ধরে

সুপার ওভারে ব্যাট করতে নেমে অবশ্য শুরুটা ভাল করতে পারেননি রোহিত। টিম সাউদির প্রথম দু'টি বলে বড় শট নিতে ব্যর্থ নিতে হন তিনি। কিন্তু ভারতের আশা বাঁচিয়ে রাখেন কে এল রাহুল। শেষ দুই বলে ভারতের জয়ের জন্য প্রয়োজন ছিল দশ রান। অভিজ্ঞ সাউদির বিরুদ্ধে কাজ একেবারেই সহজ ছিল না রোহিতের কাছে। কিন্তু পর পর দুই বলে বিশাল ছক্কা হাকিয়ে ভারতকে জয় এনে দেন রোহিত। 

সুপার ওভারে রোহিতের অবিশ্বাস্য ব্যাটিংয়ের মতোই এর পর এক অবিশ্বাস্য পরিসংখ্যান সামনে চলে আসে। পরিসংখ্যান বলছে, এর আগে দু' বার সুপার ওভারে ব্যাট করার সুযোগ পেয়েছিলেন রোহিত। কিন্তু একবারও খাতা খুলতে পারেননি তিনি। আর একবার সুপার ওভারে ব্যাট করার কথা থাকলেও শেষ পর্যন্ত তাঁকে আর নামতেই হয়নি। একনজরে দেখে নিন বুধবারের আগে সুপার ওভারে রোহিত শর্মার অতীত রেকর্ড-

  • ২০১২- ভারতীয় এ দলের হয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ এ দলের বিরুদ্ধে প্রথম বলেই শূন্য রানে আউট হয়ে যান রোহিত। 
  • ২০১৭- আইপিএল- এর ম্যাচে গুজরাট লায়ন্স-এর হয়ে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স- এর হয়ে সুপার ওভারে ব্যাট করতে নামলেও কোনও বল খেলার সুযোগ পাননি তিনি। ফলে শূন্য রানেই নট আউট থেকে যান রোহিত।
  • ২০১৯- সুপার ওভারে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স-এর হয়ে সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ-এর বিরুদ্ধে ব্যাটিং করতে নামার কথা থাকলেও শেষ পর্যন্ত সেই সুযোগেই পাননি রোহিত। 

শেষ পর্যন্ত বুধবার সুপার ওভারে ব্যাট করতে নেমে চার বলে ১৫ রান করলেন হিটম্যান। নিজের দলকে জয় তো এনে দিলেনই, তার সঙ্গে সুপার ওভারের বাধাও শেষ পর্যন্ত টপকে গেলেন রোহিত।