ফের চেন্নাই সুপার কিংস টিমে করোনা ভাইরাসের থাবা। এবার মারণ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন দলের ডানহাতি টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান ব্যাটসম্যান ঋতুরাজ গায়কোয়াড়। এর আগে শুক্রবার দলের আরেক ভারতীয় পেসার দীপক চাহারের করোন রিপোর্ট টেস্ট পজেটিভ আসে। এছড়াও করোনা আক্রান্ত হন দলে দলের ১২ জন সদস্য। তারা সকলেই দলের কোচিং স্টাফ ও মিডিয়া টিমের মেম্বার। তবে এবার দলের দ্বিতীয় ক্রিকেটার হিসেবে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হলেন ঋতুরাজ গায়কোয়ার।

আরও পড়ুনঃআইপিএল শুরুর আগেই করোনার থাবা,আক্রান্ত ধোনির চেন্নাই সুপার কিংসের ১৩ জন

ভারতীয় এ দলের হয়ে খেলেছেন মহারাষ্ট্রের ক্রিকেটার ঋতুরাজ গায়কোয়াড়। ২০১৮ সালের আইপিএল নিমালেম ঋতুরাজ গায়কোয়াড়কে দলে নিয়েছিল চেন্নাই সুপার কিংস। তবে প্রথম এগারোয় সুযোগ পাননি তিনি। এই বছর আইপিএল তার কাছে সুযোগ ছিল চেন্নাই সুপার কিংসের হয়ে পারফর্ম করার। কিন্তু করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ায় সেই স্বপ্ন প্রাথমিকভাবে ধাক্কা খেল। আপাতত তাকে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল রয়েছে চেন্নাই সুপার কিংসের প্লেয়ারের। 

আরও পড়ুনঃআইপিএল না খেলেই দেশে ফিরছেন সুরেশ রায়না, করোনা আতঙ্কই কি কারণ, উঠছে প্রশ্ন

দলের একের পর এক সদস্য করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবরে ক্রমশ আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে গোটা সিএসকে শিবিরে। সংক্রমণ যে কতদূর ছড়িয়েছে তা নিয়েও রয়েছে আশঙ্কা। ইতিমধ্যেই বিমান আরব আমিরশাহি আসার সময় চেন্নাই প্লেয়াররা যেভাবে উদাসীনভাবে মাস্ক ছাড়া আড্ডা দিয়েছে, ঘুড়ে বেড়িয়েছে তা নিয়ে উঠেছে প্রশ্ন। কারউপর সুরেশ রায়না আইপিএল না খেলে দেশে ফেরার সিদ্ধান্তের ধাক্কাও সামলাতে হচ্ছে সিএসকে। ফলে আইপিএলের দিন যতই এগোচ্ছে সমস্যা ততই বড় হচ্ছে ধোনির সিএসকে শিবিরে।

আরও পড়ুনঃউদাসীনতার ফলেই কি সিএসকে শিবিরে করোনা ভাইরাসের থাবা, একাধিক ভাইরাল ছবি ঘিরে উঠছে প্রশ্ন