ব্যাট হাতে প্রায় ২৫ বছর ২২ গজে রাজত্ব করেছেন সচিন তেন্ডুলকর। একাধিক প্রজন্মের বোলারদের তুলোধোনা করেছেন তিনি। কিন্তু কারও সঙ্গেই  মাঠের বাইরের সম্পর্ক তিক্ত নয় সচিনের। সকেলর মনেই রাজ করেন তিনি। পান সম্মানও। তেমনই নিজের পরিবারের মনেও রাজ করেন লিটল মাস্টার। লকডাউনের মধ্যে কখনও আদর্শ নাগরিক হিসেবে জনসাধারাণকে করোনা থেকে সুরক্ষিত থাকতে সচেতন করেছেন, তো কখনও আদর্শ বাবা রূপে ছেলের হেয়ারকাট করে দিয়েছেন। কখনও আবার নিজের কফি বানিয়ছেন নিজেই। এবার তিনি আদর্শ স্বামীর ভূমিকায়। ২২ গজে ২৫ বছরের পাশাপাশি বৈবাহিক জীবনেও ২৫ বছর পূর্ণ করে ফেললেন মাস্টার ব্লাস্টার। যতই লকডাউন হোক,বিয়ের ২৫ তম বিবাহ বার্ষিকীতে স্ত্রী অঞ্জলি তেন্ডুলকরের জন্য আলাদা কিছু করবেন না ছোটে নবাব,তা আবার হয় নাকি।

আরও পড়ুনঃবায়ার্ন ম্যাচের আগে হুমেলসের চোট নিয়ে চিন্তায় ডর্টমুন্ড

আরও পড়ুনঃবিরাটের বিরুদ্ধে খেললে মাঠে শত্রু আর বাইরে তারা খুব ভালো বন্ধু হতেন , মনে করেন শোয়েব আখতার

হাতে হাত ধরে সুখে, দুঃখে, আনন্দে ২৫টি বছর পার করে ফেললেন তারা। আগামী দিনগুলিতেও এভাবেই পাশে থাকার অঙ্গীকারবদ্ধ তারা। আর বিশেষ স্ত্রী এবং পরিবারকে শচীন যে সারপ্রাইজ দিলেন, তা নিঃসন্দেহে দারুণ ‘সুস্বাদু’।  লকডাউনের আবহে ফের রাঁধুনির ভূমিকায় ধরা দিলেন ক্রিকেট ঈশ্বর। নতুন একটি খাবারের পদ বানাতে বেছে নিয়েছিলেন এই বিশেষ দিনটিকেই। কী বানালেন? লোভনীয়, জিভে জল আনা আমের কুলফি। একেবারে নিজের হাতে। ইনস্টাগ্রামে ভিডিও পোস্ট করে অন্যদের শিখিয়েও দিলেন ম্যাঙ্গো কুলফি বানানোর পদ্ধতি। ভিডিওতে শচীন বলেন, “আজ ২৫তম বিবাহ বার্ষিকীতে পরিবারকে সারপ্রাইজ দেব। ম্যাঙ্গো কুলফি বানিয়ে খাওয়াব সবাইকে।” কুলফি বানানোর পদ্ধতি দেখে বেশ বোঝা যায়, তা আনকোড়া হাতের কামাল নয়। লিটল মাস্টার এসবে ভালই পারদর্শী। সে কুলফি খেয়ে অবশ্য অঞ্জলি এবং পরিবারের বাকি সদস্যদের কী প্রতিক্রিয়া, তা জানা যায়নি। তবে ডেসার্ট যে খাসা হয়েছে, তা শচীন নিজেই জানিয়ে দিয়েছেন।

 

 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 

Made this Mango Kulfi as a surprise for everyone at home on our 25th wedding anniversary. 🥭 ☺️

A post shared by Sachin Tendulkar (@sachintendulkar) on May 25, 2020 at 7:18am PDT

 

আরও পড়ুনঃকরোনার পর ক্রিকেট ফেরাতে আইসিসির নয়া গাইডলাইন,জেনে নিন গুরুত্বপূর্ণ নিয়মগুলি

বিশেষ দিনে সকাল থেকেই শুভেচ্ছার বন্যা ভেসেছেন সচিন ও অঞ্জলি। দেশ বিদেশের ক্রিকেট তারকা, বলিউড সেলেবরা ছাড়াও সচিনের বিশেষ দিনে তাকে শুভেচ্ছা জানাতে ভোলেননি তার প্রিয় বন্ধু তথা প্রাক্তন ভারতয়ী ক্রিকেটার বিনোদ কাম্বলি। সচিন ও অঞ্জলির জন্য একটি ম্যাশআপ গান প্রিয় সচিন ও অঞ্জলিকে পাঠান কাম্বলি। সোশ্যাল মিডিয়ায় গানটি শেয়ার করেন কাম্বলি। গানটি শুনে কাম্বলিকে ধন্যবাদ জানান সচিন। একইসঙ্গে সচিন লেখেন,'এত সুন্দর শুভেচ্ছার জন্য ধন্যবাদ। অঞ্জলি ও আমি তোমার গান খুব উপভোগ করেছি।'