খারাপ সময় আর পিছু ছাড়ছে না পাকিস্তানের প্রাক্তন অধিনায়ক সরফারাজ আহমেদের। দুদিন আগেই জাতীয় দলের অধিনায়কের পদ খুইয়েছিলেন। এবার জাতীয় দলের জায়গাটাও হারালেন বসেছেন। আগামী মাসে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে সিরিজ শুরু করবে পাক দল। প্রথমে টি-২০ সিরিজ। সোমবার টি-২০ সিরিজের দল ঘোষণা করল পাক বোর্ড। আর সবাইকে কিছুটা অবাক করেই পাকিস্তানের টি-২০ দল থেকে বাদ দেওয়া হল প্রাক্তন অধিনায়ককে। ২৬ তারিখ অস্ট্রেলিয়া সফরে উড়ে যাবে পাক দল। সেই বিমানে ওঠা হচ্ছে না প্রাক্তন অধিনায়কের। 

আরও পড়ুন - বাংলাদেশে ক্রিকেটারদের ধর্মঘট, অনিশ্চিত শাকিবদের ভারত সফর

আগামী বছর অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে টি-২০ বিশ্বাকাপ। তার আগে পাকিস্তানের অস্ট্রেলিয়া সফর খুবই গুরুত্বপূর্ণ। বিশ্বকাপের জন্য তাঁরা যে সরফারাজকে ভাবছেন না সেটা সোমবারই কার্যত পরিস্কার করে দিলেন পাকিস্তানের নির্বাচক প্রধান ও জাতীয় দলের কোচ মিশবা উল হক। সরফারাজকে দল ছেঁটে ফেলার পর মিশবা জানিয়েছেন, ‘ অস্ট্রেলিয়ায় কঠিন চ্যালেঞ্জ অপেক্ষা করছে। তাই অন্য ধরনের ক্রিকেট খেলতে হবে আমাদের। অক্রমণাত্মক ক্রিকেট খেলার জন্য দলে সঠিক ব্যালেন্সের প্রয়োজন।’ মিশবার কথা থেকেই স্পষ্ট, সরফারাজ এখান টি-২০ দলে ক্লোজড চ্যাপ্টার। 

আরও পড়ুন - হোয়াইট ওয়াশ সময়ের অপেক্ষা, দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে দাপুটে বোলিং শামিদের

বিশ্বকাপে ভারতের কাছে হারের পর থেকেই পাক দলের প্রাক্তন অধিনায়ককে নিয়ে ক্ষোভ ছড়িয়েছিল পাক ক্রিকেটের অন্দর মহলে। শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে একদিনের সিরিজ জিতলেও টি-২০ সিরিজে ঘরের মাঠেই হোয়াইট ওয়াশ হতে হয় পাকিস্তানকে। এতে যেন আগুনে ঘি পড়ে। আগামী বছরর টি-২০ বিশ্বকাপের কথা মাথায় রেখে সরফরাজকে নিয়ে আর ভাবতে রাজি নয় পাক ক্রিকেট। তাই প্রথমে অধিনায়কের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয় তাকে। এবার দেখিয়ে দেওয়া হল দলের বাইরের রাস্তাও। 

আরও পড়ুন - আঙুলে চোট পেয়ে মাঠ ছাড়লেন ঋদ্ধি, বাঙালিদের শিরদাঁড়ায় বইল রক্তের হিমেল স্রোত