গত মাসেই সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের পরিবারে থাবা বসিয়েছিল করোনা ভাইরাস। আক্রান্ত হয়েছিলেন সৌরভের বৌদি অর্থাৎ স্নেহাশিস গঙ্গোপাধ্যায়ের স্ত্রী। তার সঙ্গে আক্রান্ত হয়েছিলেন স্নেহাশিসের শ্বশুর ও শাসৃশুড়ি। যদিও সেই সময় সৌরভের বৌদি বাপের বাডিতেই ছিলেন। তারপরে খবর রটে গিয়েছিল সেই সময়ই কোভিড ১৯-এ আক্রান্ত হয়েছে স্নেহাশিস গঙ্গোপাধ্যায়। যদিও সেই খবর গঙ্গোপাধ্যায় পরিবারের তরফে নস্যাৎ করা হয়েছিল। সেই যাত্রায় মারণ ভাইরাসের হাত থেকে রক্ষা পেয়েছিলেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় ও তার পরিবার। কিন্তু এবার আর তা হল না। বুধবার রাতেই করোনা রিপোর্ট পজেটিভ ধরা পড়ে স্নেহাশিস গঙ্গোপাধ্যায়ের। বর্তমানে তিনি শহরের একা বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

আরও পড়ুনঃকরোনা ভাইরাসে আক্রান্ত সৌরভ গঙ্গোপাধ্য়ায়ের দাদা স্নেহাশিস গঙ্গোপাধ্যায়

স্নেহাশিস গঙ্গোপাধ্য়ায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পরই আতঙ্ক গ্রাস করেছে গোটা গঙ্গোপাধ্য়ায় পরিবারকে। কারণ সকলেই এক বাড়িতে একসঙ্গে থাকতেন। গত ৮ জুলাই জন্মদিন ছিল সৌরভ গঙ্গোপাধ্য়ায়ের। সেই সময় একসঙ্গে সকলেই পালন করেছিলেন সৌরভের জন্মদিন।এছাড়াও শোনা যাচ্ছে দাদার সঙ্গে বেশ কিছু সময় কাটিয়েছেন সৌরভ। তাই আপাতত হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হচ্ছে সৌরভ-ডোনা-সানা সহ সবাইকে। একইসঙ্গে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের করোনা পরীক্ষা করা হবে বলে জানা গিয়েছে। করোনা টেস্ট হতে পারে সৌরভের পরিবারের অন্য়ান্য সদস্যদেরও। ফলে করোনা ভাইরাসের আতঙ্ক ক্রমশ গ্রাস করেছে বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সহ তার পরিবারকেও।

আরও পড়ুনঃতৃতীয় দফার পরীক্ষায় করোনা থেকে মুক্তি পেলেন মাশরফি মোর্তাজা

আরও পড়ুনঃসেপ্টেম্বর মাসে বাতিল হতে পারে ভারত বনাম ইংল্যান্ড সিরিজ

এই পরিস্থিতিতে আইসোলেশনে থাকবেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। শুক্রবার বোর্ডের অ্যাপেক্স কাউন্সিলের বৈঠক রয়েছে। সেখানে বোর্ড প্রেসিডেন্ট সৌরভ সম্ভবত বাড়ি থেকে ভিডিয়ো কনফারেন্সের মাধ্যমে যোগ দেবেন। সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের পরিবার করোনার মারণ থাবার উদ্বিগ্ন ক্রিকেট মহল থেকে শুরু করে রাজ্য,দেশ তথা বিশ্ব জুড়ে তার অনুগামীরা। স্নেহাশিস গঙ্গোপাধ্য়ায় দ্রুত সুস্থতা কামনা করেছেন সকলে। একইসঙ্গে সৌরভ গঙ্গোপাধ্য়ায়ের পরিবার এই কঠিন সময় খুব শীঘ্রই কাটিয়ে উঠুক সেই প্রার্থনাও করছেন সকলে।