২০০৮ সালে নভেম্বর মাসের সেই ছবিটা এখনও টাটকা সবার মনে। নাগপুরে শেষ টেস্ট খেলছেন সৌরভ। শেষ দিন শেষ অধ্যায়ের খেলা চলছে। ভারত অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি এগিয়ে গিয়েছিলেন সৌরভের দিকে। শেষ বেলায় সৌরভকে দলের নেতৃত্ব দেওয়ার কথা বলেন মাহি। মহারাজের প্রতি ধোনির সেই সম্মান জানানোর প্রক্রিয়া সবার মন কেড়ে নিয়েছিল। দু ওভার মত অধিনায়কত্ত্ব করে ধোনিকে আবার ব্যাটন ফিরিয়ে দিয়েছিলেন সৌরভ। ১১ বছর পর ছবিটা এখন বদলে গেছে। 

আরও পড়ুন - সৌরভের জমানাতেই ভারতে দেখা যেতে পারে প্রথম দিন রাতের টেস্ট

২০১৯ সালের ২৩ অক্টোবর সৌরভ বিসিসিআই সভাপতির পদে বসতে চলেছেন। আর ধোনি এখন নিজের কেরিয়ারের শেষ পর্যায়ে দাঁড়িয়ে, আর মামে নামবেন কি না সেটাও জানা নেই। হবু বোর্ড সভাপতির কাছে ধোনি নিয়ে প্রশ্ন আসতেই মহারাজ একটা বিষয়ে পরিস্কার করে দিলেন। ধোনির ইচ্ছেটা আগে জানতে চান তিনি। কথা বলতে চান নির্বাচকদের সঙ্গেও। তারপরই ধোনি নিয়ে কোনও মন্তব্য করবেন তিনি। তার আগে নয়। কিন্তু ধোনি কী এতদিন ছুটি নিতে পারেন? সৌরভ বলছেন যখন এই বিষয় গুলো হয়েছে তখন তিনি বোর্ডে ছিলেন না। তাই কোনও মন্তব্য করতে চান না। সৌরভের বক্তব্য থেকে পরিস্কার, ধোনিকে সম্মানের সঙ্গেই বিদায় জানানোর পক্ষপাতি তিনি। তাই সবার সঙ্গে কথা বলে, এমনকি ধোনির ইচ্ছে জানার পরই এই বিষয়ে কথা বলতে চান। 

আরও পড়ুন - রাগ, দুঃখ সবই হয় কিন্তু প্রকাশ করি না, বলছেন মহেন্দ্র সিং ধোনি

২৩ তারিখ বোর্ডের দায়িত্ব নেবেন মহারাজ। ২৪ তারিখে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে সিরিজের জন্য ভারতীয় দল নির্বাচন। এই দল নির্বাচন হওয়ার কথা ছিল ২১ তারিখ। কিন্তু সেটা পিছিয়ে ২৪ তারিখ করা হয়েছে। সেদিনই ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলির সঙ্গে দেখা করবেন মহারাজ। বাংলাদেশের বিরুদ্ধে তিন ম্যাচের টি২০ সিরিজ ও ২ ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলবে ভারত। বিশ্বকাপের সেমিফাইনালের পর থেকে আর ক্রিকেট মাঠে দেখা যায়নি ধোনিকে। বাংলাদেশের বিরুদ্ধে টি২০ সিরিজে ধোনির ফেরার কথা থাকলেও ধোনি নিজের ছুটি আরও কিছুদিনের জন্য বাড়িয়ে নেন। তাই বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ঘরের মাঠের সিরিজেও নেই তিনি। সৌরভের অধিনায়কত্ত্বেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয়েছিল ধোনির। এখন দেখার বোর্ড সভাপতি সৌরভের কার্যকালে ধোনি আবার ক্রিকেটে ফিরে আসেন, না আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নেন। 

আরও পড়ুন - বোর্ড সভাপতি সৌরভ, দাদিকে শুভেচ্ছা ছোট বাবুর