৭ ও ৮ - জুলাই মাসে পর পর দুদিন ভারতের দুই সর্বকালের সেরা অধিনায়কের জন্মদিন। ৭ জুলাই ধোনি ৩৮ -এ পা দিয়েছেন, আর তার পরের দিনই সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় ৪৭-এ। ভারতের এই দুই প্রাক্তন অধিনায়কই ভারতীয় ক্রিকেট সমর্থকদের অত্যন্ত কাছের মানুষ। আর তাদের নিয়ে ভক্তদের মধ্যে প্রায় ভাঙন ধরাতে চাইল আইসিসি।

৮ জুলাই সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের জন্মদিনের দিনই আইসসিসি এক সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টে সৌরভ ও ধোনির একটি ছবি পোস্ট করেছে। সঙ্গে লিখেছে, 'ভারতের দুই সেরা অধিনায়ক একদিনের ব্যবধানে তাঁদের জন্মদিন উদযাপন করছেন। কাকে এগিয়ে রাখবেন?'

আইসিসির এই পোস্টে সৌরভ ও ধোনি ভক্তদের মধ্য়ে বিবাদ লাগার সমুহ সম্ভাবনা ছিল। প্রাথমিক ভাবে কোনও কোনও ধোনি ভক্ত (সম্ভবত তাঁরা ম্য়াচ গড়াপেটা পরবর্তি সময়ের ভারতীয় ক্রিকেট সম্পর্কে অবহিত নন) এমএস তিনটি আইসিসি ট্রফি জিতেছেন, এবং সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় একটি এশিয়া কাপও জিততে পারেননি - এই যুক্তি দিয়ে ধোনিকে এগিয়ে রেখেছিলেন। আবার কোনও কোনও অন্থ দাদা ভক্ত সৌরভকে এগিয়ে রেখেছিলেন।

আরও পড়ুন - ৪৭-এ পা, জন্মদিনে নতুন যাত্রা শুরু সৌরভের

আরও পড়ুন - শুভ জন্মদিন ধোনি - ৩৮-এ পা দেওয়ার বিশেষ দিনে দেখে নিন তাঁর বিরল ২৫টি ছবির ভিডিও

আরও পড়ুন - হার্দিক, পন্থ ও জিভার সঙ্গে নাচ! ৩৮ এল রঙিন ছন্দে - দেখুন ভিডিও

এই অংশের সংখ্যা অবশ্য নগন্য। বেশিরভাগ ভারতীয় সমর্থক ওই পোস্টের কমেন্টস সেকশনে স্পষ্ট লিখেছেন, কেন দুইজনের মধ্য়ে থেকে কোনও একজনকে বেছে নিতে হবে। তাঁরা দুজনেই দক্ষতায় ও ক্রিকেটিয় অবদানে মহান। কেউ বলেছেন তাঁরা দুজনেই কিংবদন্তি এবং নিজ নিজ কারণে অসাধারণ ও অনবদ্য।

আর শেষ কথা বলে দিয়েছেন আরেক ভারতীয় সমর্থক। তিনি বলেছেন, সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় ভিত গড়ে দিয়েছেন, আর মাহি তাঁর উপর ইমারত তৈরি করেছেন। আর আরেক জন বলেছেন, ধন্যবাদ দাদা,. ভারতীয় ক্রিকেটকে মাহি উপহার দেওয়ার জন্য।

ভারতীয় সমর্থকদের মধ্যে যে চিড় ধরানোর অপচেষ্টা করেছিল আইসিসি, তার মুখের উপর জবাব পেল। তবে এই পোস্টে যে শুধু ভারতীয় সমর্থকরাই কমেন্ট করেছেন তা নয়, বাংলাদেশী ও পাকিস্তানি সমর্থকরাও মন্তব্য করেছেন। তাঁদের সমর্থনের পাল্লা অবশ্য দাদার দিকেই ভারি।