করোনার প্রভাব একটু কমতেই বিশ্ব জুড়ে শুরু হয়ে গিয়েছে ফুটবলের মহযজ্ঞ। ইউরোপের বিভিন্ন দেশে একের পর এক ফিরছে বিশ্বের নামজাদা ফুটবল লিগগুলি। শুধু ফুটবল নয়, ফিরছে ক্রিকেটও। ৮ জুলাই ইংল্যান্ড বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ টেস্ট সিরিজ দিয়ে শুরু হচ্ছে লকডাউন পরবর্তী আন্তর্জাতিক ক্রিকেট সিরিজ। ঘরোয়া ক্রিকেট শুরুর ঘোষণা করেছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়াও। বিসিসিআইও প্রস্তুত হতে বলেছে সব রাজ্যভিত্তিক ক্রিকেট সংস্থাগুলিকে। এবার ঘরোয়া ক্রিকেটের মধ্যে দিয়েই ফিরতে চলেছে দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেট। তবে ক্রিকেট ফেরানোর এক অভিনব উদ্যোগ নিয়েছে ক্রিকেট সাউথ আফ্রিকা।করোনার জন্য ক্ষতির মুখে পড়া সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে সাহায্য করার জন্য প্রোটিয়া ক্রিকেট বোর্ড সলিডারিটি কাপের আয়োজন করছে। সমস্ত রকম সতর্কতা অবলম্বন করেই হবে এই অভিনব র্টুনামেন্ট ফাঁকা স্টেডিয়ামে খেলা হবে বলে জানানো হয়েছে ক্রিকেট সাউথ আফ্রিকার তরফে। এই র্টুনামেন্টের ফরম্যাট অন্যরকমের।

আরও পড়ুনঃলিসবনেই হচ্ছে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনাল

আগামী ২৭ জুন সেঞ্চুরিয়নের সুপারস্পোর্ট পার্কে খেলা হবে এই প্রদর্শনী সলিডারিটি কাপ। তিনটি দলের ক্যাপ্টেন নির্বাচিত হয়েছেন কাগিসো রাবাদা, কুইন্টন ডি'কক ও এবি ডি'ভিলিয়র্স। দক্ষিণ আফ্রিকার প্রথম সারির সব ক্রিকেটারকে খেলতে দেখা যাবে এই চ্যারিটি ম্যাচে। এই ম্যাচ থেকে সংগৃহীত অর্থ করোনা মহামারির ফলে সমস্যায় থাকা ক্রিকেট কমিউনিটির কল্যাণে কাজে লাগানো হবে। অদ্ভূত এই ফর্ম্যাটে আগে কখনও খেলা হয়নি। প্রতিটি দলে ৮ জন করে ক্রিকেটার থাকবেন এই ম্যাচে। দুটি অর্ধে ১৮-১৮, মোট ৩৬ ওভারের খেলা হবে। একটি অর্ধকে ৬ ওভারের তিনটি পর্বে ভাগ করা হবে। অর্থাৎ, প্রথমার্ধে তিনটি দল পর্যায়ক্রমে ৬ ওভার করে ব্যাট করবে। যারা বেশি রান করবে সেই নিরিখে দ্বিতীয়ার্ধে আবার তিনটি দল ব্যাট করবে ৬ ওভার করে। এভাবে প্রতিটি দল দু'টি অর্ধে মোট ১২ ওভার করে ব্যাট করবে।ম্যাচে সার্বিকভাবে যে দল সবথেকে বেশি রান করবে, তারা জিতবে গোল্ড। দ্বিতীয় দল জিতবে সিলভার এবং তৃতীয় দলকে দেওয়া হবে ব্রোঞ্জ পদক। গোল্ডের জন্য দু'টি দল সমান রান করলে সুপার ওভার খেলা হবে। তিনটি দল একই রান করলে তিনজনেই সোনা জিতবে। রুপোর জন্য দু'টি দলের স্কোর একই হলে তারা যুগ্মভাবে সিলভার জয়ী হবে।

আরও পড়ুনঃগালওয়ানে শহীদ ভারতীয় জওয়ানদের শ্রদ্ধা জ্ঞাপন সচিন,বিরাট,রোহিতদের

আরও পড়ুনঃশহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা ও চিনা হামলার তীব্র নিন্দা বাইচুং,সুনীল,সাইনাদের

এই প্রথম নয়, এর আগে ফুটবলে সলিডারিটি কাপের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। যদিও সেই ম্যাচও এখনও হয়নি। স্পেনের রিয়াল মাদ্রিদ, জার্মানির বায়ার্ন মিউনিখ এবং ইতালির ইন্টার মিলান এই তিন ক্লাব সলিডারিটি কাপে খেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। জার্মানিতে হবে এই খেলা।  অতিমারী করোনায় ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্থ ইতালি এবং স্পেনের স্বাস্থ্যখাতে অর্থসাহায্য করতে এই তিন ক্লাব অংশগ্রহণ করবে নিজেদের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত ‘ইউরোপিয়ান সলিডারিটি কাপে’। তবে দর্শক স্টেডিয়ামে প্রবেশের অনুমতি মেলার পরই হবে এই কাপ। এই কাপ থেকে যে টাকা উঠবে তা তুলে দেওয়া হবে ইতালি ও স্পেন প্রশাসনের হাতে। এবার ক্রিকেটেও হতে চলেছে সলিডারিটি কাপ। ফাঁকা স্টেডিয়ামে হলেও, দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট বোর্ডের এই অভিনব উদ্যোগকে ঘিরে ইতিমধ্যেই উৎসাহ বাড়ছে প্লেয়ার থেকে ক্রিকেট প্রেমিদের মধ্যে।