ভারতীয় তথা বিশ্ব ক্রিকেটের কিংবদন্তি সচিন টেন্ডুলকার শনিবার সরব হলেন বর্নবিদ্বেষের বিরুদ্ধে। সম্প্রতি বর্নবিদ্বেষের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে একটি ভিডিও প্রকাশ করেছিল আইসিসি। সেই ভিডিওটিই টুইট করেন মাস্টার ব্লাস্টার। তার সাথে জুড়ে দেন খেলাধুলা সংক্রান্ত নেলসন ম্যান্ডেলার একটি বিখ্যাত উক্তি। সেই উক্তিতে ম্যান্ডেলা বলেছিলেন খেলাধুলোর মধ্যে ক্ষমতা আছে গোটা বিশ্বকে পরিবর্তন করার। সারা বিশ্বের লোককে এক সুতোয় গাঁথতে পারে খেলাধুলা। সচিন ম্যান্ডেলার সেই বিখ্যাত উক্তি উদ্ধৃত করে নিজের অবস্থান ব্যক্ত করেছেন। 

আরও পড়ুনঃপ্রিমিয়ার লিগের প্রথম তিন দফার সূচি প্রকাশিত, জেনে নিন বিস্তারিত

আমেরিকায় জর্জ ফ্লয়েডের দুঃখজনক মৃত্যু, বা বলা ভালো হত্যার অবসরে ভিডিওটি প্রকাশ করেছিল আইসিসি। ভিডিওটিতে আইসিসি ২০১৯ বিশ্বকাপের ফাইনালের কিছু মুহুর্ত তোলা ছিল। যেখানে দেখা যায় সুপার ওভারে ইংল্যান্ডের কৃষ্ণাঙ্গ পেসার জোফ্রা আর্চারের দুর্দান্ত বোলিংয়ে ভর করে ফাইনাল জিতে নেয় ইংল্যান্ড। সেই ভিডিওটি প্রকাশ করে আইসিসি লেখে বৈচিত্রই ক্রিকেটের সব, বৈচিত্র বাদ দিয়ে পুরো চিত্র চোখের সামনে পরিস্কার হয়ে উঠে না। 

আরও পড়ুনঃরোহিতের তৃতীয় ডবল সেঞ্চুরির আগে কেনও কেঁদেছিলেন রীতিকা, কারণ জানালেন হিটম্য়ান

আরও পড়ুনঃসমস্যা সত্ত্বেও প্লেয়ার ও কর্মীদের বেতন কাটতে নারাজ সৌরভ,অন্য খাতে খরচ কমাচ্ছে বিসিসিআই

এর মধ্যে ক্রিস গেইল থেকে শুরু করে আরও অনেক ক্রিকেটার ক্রিকেটে বর্ণবৈষম্যের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছেন। জানিয়েছেন ক্রিকেটেও বর্নবিদ্বেষের ঘটনা ঘটে থাকে। অনেক মনে করছেন তার ফলস্বরূপই এই ভিডিও প্রকাশ করেছে আইসিসি। শুধুমাত্র ক্রিকেটাররাই নন, আরো অনেক ক্রীড়াব্যক্তিত্ব এই ঘটনার প্রতিবাদে সরব হয়েছেন। এই নিয়ে আইসিসির এতদিনের নিরবতা নিয়েও প্রশ্ন তুলে দিয়েছিলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক ড্যারেন সামি। তাই জন্যই আইসিসির এই ভিডিও প্রকাশ বলে ধারণা অনেকের।