একপ্রকার নিশ্চিত যে করোনা পরবর্তী সময়ে ক্রিকেট ফিরলে বল পালিশে থুতুর ব্যবহার নিষিদ্ধ করা হবে। ইতিমধ্যেই স্যালাইভার ব্যবহার নিষিদ্ধ করার জন্য আইসিসিকে রিপোর্টও দিয়েছে কুম্বলে কমিটি। তবে তাতে ঘাম ব্যবহারের ক্ষেত্রে কোনও নিষেধাজ্ঞার কথা বলা হয়নি। তবে সূত্রের খবর বল পালিশের ক্ষেত্রে দুটোর ব্যবহারই বন্ধ করতে পারে আইসিসি। এবার করোনা পরবর্তী সময়ে বল পালিশের জন্য বিকল্প পদ্ধতি চাইলেন ভারতীয় দলের তারকা পেসার জশপ্রীত বুমরা। বোলারদের কথা ভেবেই বিকল্প কোনও কিছু দাবি জানিয়েছেন বুম বুম বুমরা।

আরও পড়ুনঃকরোনা পরবর্তী সময়ে ক্রিকেটের পরিবর্তন নিয়ে উদ্বিগ্ন বিরাট কোহলি

সম্প্রতি আইসিসির এক ভিডিও সিরিজে যোগ দেন বুমরা। যেখানে ছিলেন, দক্ষিণ আফ্রিকার প্রাক্তন পেসার শন পোলক ও প্রাক্তন ক্যারিবিয়ান পেসার ইয়ান বিশপও। সেখানে বুমরা জানান, আমি কখনওই খুব বেশি কাউকে জরিয়ে ধরি না বা হাত মেলাই না, তাই সেটা আমার জন্য কো‌নও সমস্যা তৈরি করবে না। আমার কাছে সব বপেশি গুরুত্বপূর্ণ স্যালাইভা ব্যবহার।''তিনি আরও বলেন, ‘‘আমি জানি না কী নিয়ম মেনে চলতে হবে যখন ক্রিকেটে ফিরব, কিন্তু আমার মনে হয় কোনও একটা বিকল্প অবশ্যই থাকা উচিৎ।''বুমরার মতে, বলে থুতু ব্যবহার করতে না পারলে ক্রিকেট অনেকবেশি ব্যাটসম্যানের খেলার হয়ে যাবে। তিনি বলেন, ‘‘বপল যদি সঠিকভাবে রক্ষণাবেক্ষন না করা হয়, তাহলে বোলারদের সমস্যা হবে। মাঠে ছোট হয়ে যাচ্ছে ক্রমশ, উইকেট ক্রমশ ফ্ল্যাট হয়ে যাচ্ছে। তাই আমাদের কিছু দরকার, কিছু বিকল্প বোলারদের জন্য যাতে বলকে সঠিক রাখা যায় এবং কিছু করা যায়।''

আরও পড়ুনঃশুরু হচ্ছে লা লিগা,তার আগে জেনে নিন লিগের ইতিহাসে সেরা ১০ লেজেন্ড কারা

আরও পড়ুনঃদরজায় কড়া নাড়ছে লা-লিগা, চিনে নিন লিগের ইতিহাসে সেরা গোলকিপারদের

বর্তমান সময়ে টেস্ট ম্যাচ ক্রিকেটে ফাস্ট বোলারদের জন্য পরিস্থিতি তাঁদের পক্ষে থাকে বলে দাবি করেন বিশপ। সেটা মেনে নিয়ে বুমরা বলেন, ‘‘টেস্ট ক্রিকেটে, হ্যাঁ। এই কারণে এটা আমার প্রিয় ফর্ম্যাট। কারণ ওখানে আমাদের জন্য কিছু থাকে। কিন্তু ওয়ান ডে ও টি২০তে .. ওডিআইতে দুটো নতুন বল থাকে, তাই শেষে গিয়ে বলে কোনও রিভার্সই থাকবে না।তাই একটা বিকল্প পদ্ধতি অবশ্য দরকার।" গোটা আলাপচারিতা থেকে এটুকু পরিষ্কার যে স্বাস্থ্যবিধির কথা ভেবে বলে স্যালাইভার ব্যবহার বন্ধ করতে রাজি বুমরা, কিন্তু বোলারদের জন্য কোনও বিকল্প পথও ভাবা উচিৎ আইসিসির। শুধু বুমরা নয় এই দাবি তুলছেন অনেক বর্তমান ও প্রাক্তন পেস বোলাররা।