সদ্য প্রকাশিত আইসিসির টেস্ট ব়্যাঙ্কিংয়ে হারানো শীর্ষস্থান পুনরায় দখল করেছে অস্ট্রেলিয়া। ২০১৬ সালের পর সিংহাসনচ্যুত হয়েছে বিরাট কহোলির  টিম ইন্ডিয়া। শুধু শীর্ষস্থান হারানো নয়, এক নম্বর থেকে তিন নম্বরে নেমে এসেছে কোহলি ব্রিগেড। দুইয়ে রয়ছে কিউরা। তবে হারানো আসন পুনরায় ফিরে পেয়ে কোনওরকম আত্মতুষ্টিতে ভুগতে নারাজ ব্যাগি গ্রিণদের কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গার। এখনও অনেক পথ বাকি বলে মনে করছেন ল্যাঙ্গার।  কারণ অজি কোচ ভাল মতনই জানেন পরিস্থিতি যে কোনও সময় বদলাতে পারে। তার প্রথম কারণ পয়েন্ট টেবিল। আইসিসির প্রকাশিত তালিকায় ১১৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষস্থানে রয়েছে অস্ট্রেলিয়া, ১১৫ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে নিউজিল্যান্ড ও ১১৫ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় ভারত। ফলে এক-দুই পয়েন্টের ব্যবধান মোটেই খুব একটা স্বস্তির নয় তা মানছেন ল্যাঙ্গার। আর দ্বিতীয় কারণ হচ্ছে, ল্যাঙ্গার মনে করেন যতক্ষণ না পর্যন্ত তার দল অস্ট্রেলিয়া ও ভারতের মাটিতে বিরাট কোহলির দলকে হারাতে না পারছে ততক্ষণ পর্যন্ত শীর্ষস্থান ধরে রাখা কঠিন কাজ।

আরও পড়ুনঃনিউজিল্যান্ডে হারের জের, অজিদের কাছে টেস্টে শীর্ষস্থান খোয়াল ভারত

আরও পড়ুনঃঅধিনায়ক ও ব্যাটসম্যান হিসেবে স্মিথের থেকে এগিয়ে কোহলি,মন্তব্য প্রাক্তন অজি অধিনায়কের

অস্ট্রেলীয় ক্রিকেট বোর্ডের ওয়েবসাইটে অস্ট্রেলিয়ার কোচ বলেছেন," ‘আমরা জানি ব়্যাঙ্কিংয়ে অবস্থান পাল্টে যেতে সময় লাগে না। তবে এক নম্বরে উঠে আসতে পেরে আমরা খুশি। ‘আমরা দল হিসেবে যে জায়গায় আসতে চাই, সেখানে পৌঁছতে গেলে এখনও অনেক কাজ বাকি। তবে আশা করি গত কয়েক বছরে আমরা ভালই পারফর্ম করেছি। শুধু মাঠের মধ্যেই নয়, মাঠের বাইরেও।" কিন্তু সামনে যে তার দলের আসল পরীক্ষা রয়েছে তাও মনে করিয়ে দিতে ভোলেননি ল্যাঙ্গার। তিনি বলেছেন,"অবশ্যই আমাদের লক্ষ্য বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে ভাল ফল করা। তবে তার পাশাপাশি ভারতকে ওদের দেশে হারাতে হবে। অস্ট্রেলিয়াতেও ওদের হারাতে হবে আমাদের। একটা সেরা দলকে হারালে তবেই নিজেদের সেরা বলা যায়। আমাদের সামনে বেশ কয়েকটা কঠিন দলকে হারানোর চ্যালেঞ্জ অপেক্ষা করছে।এক নম্বরে উঠে আসাটা দারুণ ব্যাপার। তবে শীর্ষস্থানে উঠে আসলে সবাই সেই দলকে হারাতে চায়। আমরা এত দিন যেটা চাইতাম। এখন আমরা সেই জায়গায় পৌঁছে গিয়েছি। তাই আমাদের নিজেদের আরও উন্নত করে তুলতে হবে।"ল্যাঙ্গারের বক্তব্য থেকে এটুকু পরিষ্কার যে আগামি দিনে ভারতকেই প্রধান টার্গেট করেছে অস্ট্রেলিয়া। একইসঙ্গে পয়েন্ট টেবিল যেই জায়গায় দাঁড়িয়েছে করোনা পরিস্থিতি কাটিয়ে ফের যখন ক্রিকেট শুরু হবে বেশ কিছু রোমাঞ্চকর সিরিজ অপেক্ষা করে রয়েছে বিশ্ব জুড়ে ক্রিকেট প্রেমিদের জন্য।

আরও পড়ুনঃলকডাউনে খান ডাল-ভাত-চোখা,মোবাইল সিনেমার মাধ্যমে বার্তা বাংলার ক্রিকেটারদের