ম্যাচ গড়েপেটায় যুক্ত থাকার অভিযোগে পাকিস্তানের ক্রিকেটার উমর আকমলকে তিন বছরের জন্য সমস্ত ধরনের ক্রিকেট থেকে নির্বাসিত করেছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের শৃঙ্খলা রক্ষা কমিটি। অভিযোগ পিএসএল চলাকালীন গড়াপেটার প্রস্তাব পেয়েও তা বোর্ড কে জানাননি উমর আকমল। বিষয়টি জানাজানি হতেই উমরের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করল পিসিবি। এই বিষয়ে এবার ভাই উমরের পাশে দাঁড়ালেন দাদা কামরান আকমল। পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের সিদ্ধান্তের প্রতি ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন কামরান। একইসঙ্গে উমর যে আইনে পথে হাঁটবে তার শাস্তির বিরুদ্ধে তাও পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছেন কামরান আকমল।

আরও পড়ুনঃগড়াপেটার প্রস্তাব পেয়েও জানাননি বোর্ডকে,৩ বছরের নির্বাসিত উমর আকমল

পিসিবিকে একহাত নিয়ে কামরান আকমল জানিয়েছেন,'উমরকে যে কঠিন শাস্তি দেওয়া হয়ে তা দেখে আমি অবাক। তিন বছরের নির্বাসন খুব বেশি বড় শাস্তি। তবে ও এই শাস্তির বিরুদ্ধে যেখানে যেখানে সম্ভব আবেদন জানাবে।' একই অভিযোগে অন্য প্লেয়ারদের সামান্য শাস্তি হওয়ার অভিযোগ তুলেও সরব হয়েছেন কামরান। প্রক্তান পাক ক্রিকেটার জানিয়েছেন, 'অবশ্যই এটা বুঝতে আমার অসুবিধে হচ্ছে কারণ অতীতে অন্য প্লেয়ারদের অনেক কম সময় নির্বাসিত করা হয়েছে এই একই অপরাধের জন্য। কিন্তু উমরকে এরকম কঠিন শাস্তি দেওয়া হল।' আকমল মহম্মদ ইরফান, মহম্মদ নওয়াজের উদাহরণ টেনে এনেছেন, যাঁদের এই ম্যাচ গড়াপেটার আবেদনের খবর না জানানোর জন্য অনেক কম সময় নির্বাসিত করা হয়েছিল। কামরান এও নিশ্চিত করেছেন, উমর লিগ্যাল কাউন্সিল নিযুক্ত করে সঠিক জায়গা তাঁর শাস্তির বিরুদ্ধে আবেদন জানাবেন।

আরও পড়ুনঃকিপিংয়ে ধোনির পরিবর্ত হয়ে স্নায়ূর চাপে ভুগছেন কে এল রাহুল

আরও পড়ুনঃলকডাউন ভেঙে পার্টি করায় শাস্তি এভার্টন ফুটবলারের,২ সপ্তাহের বেতন কাটা গেল মোয়েস কিনের

প্রসঙ্গত, চলতি বছর পাকিস্তান সুপার লিগে  কোয়েটা গ্ল্যাডিয়েটর্স দলে ছিলেন উমর আকমল। আকমলের বিরুদ্ধে অভিযোগ,পাকিস্তান সুপার লিগে ম্যাচ ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব পেয়েছিলেন তিনি। দুটি ডেলিভারির জন্য তাঁকে দু’লক্ষ ডলারের প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল। সেই সঙ্গে ভারতের বিরুদ্ধে না খেলার জন্য মোটা অঙ্কের অর্থেরও প্রস্তাব পেয়েছিলেন উমর। কিন্তু দুটি প্রস্তাবই বোর্ডের কাছ থেকে গোপন করে যান তিনি।  চলতি মাসের শুরুতেই আকমল সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা দুর্নীতির অভিযোগের বিরুদ্ধে তিনি কোনও আবেদন করবেন না। এরপরই পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড মামলাটি শৃঙ্খলারক্ষা কমিটির কাছে পাঠায়। পিসিবির দুর্নীতিদমন আইনের আর্টিক্যাল ২.৪.৪ অমান্য করার অভিযোগে দোষী সাব্যস্ত হন উমর আকমল। অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি ফজল-ই-মিরান চৌহানের নেতৃত্বাধীন শৃঙ্খলারক্ষা কমিটি পাক তারকাকে তিন বছরের জন্য নির্বাসিত করার কথা ঘোষণা লকরেন। প্রথমে কিছু না বললেও, এবার উমর আকমলের দাদা কামরান আকমল জানান, আইনি পথে যাবেন উমর। ফলে এই ঘটনা নয়া মাত্রা পেল বলেই মন করছেন ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা।