বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল থেকে ভারতীয় দল ছিটকে যাওয়ার পর থেকেই ভারতীয় দলে বিরাট কোহলি এবং রোহিত শর্মার মধ্যে দ্বন্দ্ব রয়েছে বলে শোনা গিয়েছে। বোর্ডের পক্ষ থেকে খবরটা অস্বীকার করে যাওয়ার চেষ্টা করা হলেও এখনও বিষয়টার কোনও সুষ্ঠু সমাধান হয়নি। প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার সুনীল গাভাস্কর অবশ্য মনে করছেন, এখন কেন, আগামী ২০ বছরেও এই দ্বন্দ্বের কাহিনি চলবে।

তাঁর মতে অসদ উদ্দেশ্য নিয়েই এই দ্বন্দ্বের কাহিনি ছড়ানো হয়েছে। যে বা যারা এই কাহিনির জন্ম দিয়েছেন, তারা ভারতীয় ক্রিকেটের ভাল চান বলেই মনে করেন ব্যাটিং কিংবদন্তি। তাঁর মতে দুদিক থেকে এই কাহিনির ছড়িয়ে থাকতে পারে। কোনও ক্রিকেটার দলে সুযোগ না পেয়ে হতাশা থেকে এই গল্পের জন্ম দিতে পারে। আবার কোনও বোর্ড কর্তা বোর্ডের রাজনীতির স্বার্থেও রটিয়ে থাকতে পারে। এদের ঈর্ষা দলের পক্ষে ক্ষতিকর বলেও জানিয়েছেন তিনি।

আর এদের কাহিনিকেই গাছে তুলে গিয়েছে সংবাদ মাধ্যম। গাভাস্করের মতে, যখন খেলা থাকবে তখন সংবাদমাধ্যম এই বিষয়টা নিয়ে অত মাথা ঘামাবে না। কিন্তু কেলা না থাকলেই খবরের অভাবে এই দ্বন্দ্ব নিয়ে মুচমুচে চর্চা হবে। তবে বিরাট-রোহিতরা পেশাদার ক্রিকেটার। তাই সংবাদমাধ্যম যাই লিখুক তারপরেও তারা মাথা নামিয়ে খেলে যাবেন, ভারতকে ম্যাচ জেতাবেন। কিন্তু, তারপরেও এই কাহিনি বন্ধ করতে পারবেন না।

আরো পড়ুন - লজ্জা পেলেন বিরাট! 'সুখী ড্রেসিংরুম'-এ রোহিতকে কী দেখালেন জাদেজা, দেখুন ভিডিও

নিজেদের খেলার দিবে সুনীল গাভাস্করের সঙ্গে তখনকার ভারতীয় দলের আরেক মহাতারকা কপিল দেবের ইগোর লড়াই রয়েছে বলে শোনা যেত। এমনকী খেলা ছাড়ার দীর্ঘদিন পরেও এই নিয়ে বহু চর্চা হয়েছে। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে সেই কাহিনি ফিকে হয়ে গিয়েছে। তবে তারপরেও ভারতীয় দলে আজহার-সিধু, সৌরভ-রাহুল, রাহুল-সচিন, ধোনি-গম্ভীর - এইরকম নানান দ্বন্দ্ব নিয়ে লেখালেখি হয়েছে। কাজেই গাভাস্কর এই বিষয়টা অনেকের থেকে ভাল বুঝবেন, বলাই বাহুল্য।