ভারতের বিশ্বকাপ বিদায়ের পর থেকেই, ভারতীয় ক্রিকেট মহলে সবচেয়ে আলোচিত বিষয় বিরাট কোহলি-রোহিত শর্মা দ্বন্দ্ব। গত পনেরো দিনে এই বিষয়ে অনেক কালি খরচা হয়েছে। জানা গিয়েছে বিরাট-রোহিত দ্বন্দ্বটা নতুন নয়। এমনকী বিদেশ সফরের ক্রিকেচারদের সঙ্গে স্ত্রীদের থাকার বিষয়ে একেক জনের জন্য একেক নিয়ম নিয়েও সরব হয়েছিলেন তিনি। কিন্তু এত বিতর্কেও অবস্থাটা পাল্টায়নি।

গত ২৯ জুলাই তারিখে ক্যারিবিয়ান সফরের প্রথম দুই ম্যাচ খেলতে মার্কিন মুলুকে পাড়ি দিয়েছিল ভারতীয় দল। দলের সঙ্গে যাননি কোনও ভারতীয় ক্রিকেটারের স্ত্রী-প্রেমিকা বা সন্তানরা। কিন্তু দল মায়ামি পৌঁছতেই ফের অনুষ্কা শর্মাকে দেখা গেল বিরাট কোহলির সঙ্গে। সফরে তিনি দলের সঙ্গী হবেন কিনা সেই বিষয়টা এখনও স্পষ্ট নয়।

অথচ, রওনা হওয়ার আগেই সীমিত ওবারের ভারতীয় দলের সহঅধিনায়ক রোহিত শর্মা সোশ্য়াল মিডিয়ায় স্ত্রী রীতিকা ও তাঁর প্রাণপ্রিয় কন্যার সঙ্গে তোলা একটি ছবিপোস্ট করেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। ক্যাপশনে দুঃখের ইমোজি দিয়ে লেখেন 'আমার স্কোয়াডের অভাব বোধ করব'। রীতিকাও পাল্টা একটি মেয়ে একটি বিমানকে বিদায় জানাচ্ছে এইরকম কার্টুন ছবি পোস্ট করেন। অর্থাৎ স্পষ্টই বোঝা যাচ্ছে রীতিকা ও রেহিতের কন্যা সফরে তাঁর সঙ্গী হচ্ছেন না। পরের দিকেও সম্ভবত যাওয়ার পরিকল্পনা নেই।

অর্থাৎ বিতর্কের পরও দলের একেক ক্রিকেটারের জন্য একেক নিয়মের সংস্কৃতি অব্যাহত রয়েছে। ইংল্যান্ড সফরে ভারতীয় দলের সদস্যদের মধ্য়ে একমাত্র অধিনায়ক বিরাটের স্ত্রী অনুষ্কাই সঙ্গী হয়েছিলেন। এমনকী ভারতীয় হাই কমিশনে আয়োজিত সরকারি ভোজেও তিনি দলের সঙ্গে গিয়েছিলেন। ভোজের পর তোলা ছবিতেও তিনি ছিলেন একেবারে মধ্যমণি। অথচ, টেস্ট সহঅধিনায়ক রাহানে সেই গ্রুপ ছবি থেকে প্রায় বেরিয়েই গিয়েছিলেন। সেই ছবির ক্যাপশেন বিসিসিআই 'টিম ইন্ডিয়া' বলে লেখায় অনুষ্কা টিম ইন্ডিয়ায় সদ্স্য  কি না, সেই প্রশ্নও ওঠে। সেই সময় এক ফ্য়ান সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছিলেন 'একেক জনের জন্য একেক নিয়ম'। সেই পোস্ট লাইক করেছিলেন হিটম্যান।